স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ভারতীয় ছবির ইতিহাসকে সংরক্ষণ করার এক অভিনব উদ্যোগ নিল ‘ফিল্ম হেরিটেজ ফাউন্ডেশন’৷ ইতিমধ্যেই ২৪ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব সম্পন্ন হয়েছে৷ আর শেষ হওয়ার আগে ফিল্ম হেরিটেজ সংস্থা ঘোষনা করল ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতে এমন কিছু বিরল সিনেমা রয়েছে যা সংরক্ষন করবেন তাঁরা৷ এই নিয়ে চতুর্থতম বর্ষে পড়ল “film preservation and restoration workshop”৷  ১৫ তারিখ থেকে শুরু হয়ে গিয়েছে ওয়ার্কশপ, চলবে ২২ তারিখ পর্যন্ত৷ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেখা গেল চাঁদের হাট৷ উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, মাধবী মুখোপাধ্যায়, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, পরিচালক বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, গৌতম ঘোষ, পূর্ত, ক্রীড়া ও যুবকল্যান মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এবং তথ্য ও সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন সহ একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা৷

২০১৬ থেকে নেওয়া হয়েছে এই উদ্যোগ৷ ইতিমধ্যে ৩০০ টির মতো সিনেমাকে সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে৷ রয়েছে সত্যজিৎ রায়, প্রমোথেশ বরুয়া, তপন সিনহার মতো চলচ্চিত্র নির্মাতাদের ছবি৷ তবে বেশ কিছু কিংবদন্তী পরিচালকের দুষ্প্রাপ্য কিছু সিনেমার সংরক্ষন করা যায়নি বলে আক্ষেপ করেন ভায়াকম ১৮-র কর্মকর্তারা৷ সেই তালিকায় রয়েছে বাংলা চলচ্চিত্র জগতের জনক হিরালাল সেনের মতো ব্যক্তিত্বের বেশকিছু সিনেমাও৷ পাশাপাশি এও জানান যে ফিল্ম প্রিসারভেশন এন্ড রিস্টোরেশন বিষয়টি খুবই সময়সাপেক্ষ এবং খরচসাপেক্ষ বিষয়৷যাদের নিরন্তর প্রচেষ্টায় কর্মকান্ডটি সফল হচ্ছে, তাঁদের এই অনুষ্ঠানে বিশেষভাবে সম্মানিতও করেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস৷

এই বিশেষ প্রকল্পটি নিয়ে কেআইএফএফ সভাপতি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় জানান, এই বিশেষ উদ্যোগটি সত্যিই প্রশংসনীয়৷ একজন চলচ্চিত্র নির্মাতা অনেক কষ্ট করে একটি সিনেমা বানায় সেটি যদি সংরক্ষণ করা হয়, তাহলে ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে অনেক কাজে লাগবে, তাঁরাও দেখতে পারবে যে তাঁদের উত্তরসূরী কী কী সৃষ্টি করেছে৷ এই উদ্যোগকে আমি মন থেকে স্বাগত জানাচ্ছি৷

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here