ডেস্ক: শহরে সাতসকালে মেডিক্যাল কলেজে আগুন লাগার ঘটনায় আবারও বাগরি মার্কেটের ভয়াবহ চিত্রের ঝলক সামনে আসে। কলেজের ওষুধের দোকানে এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের জেরে প্রায় ৮০ শতাংশ ওষুধই নষ্ট হয়ে গিয়েছে। এই বিষয়ে তদন্তের জন্য পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার৷ এই অগ্নিকাণ্ডের ফলেই হাসপাতালে ভর্তি এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

মেডিক্যাল কলেজে আগুন লাগার ঘটনায় রীতিমতো স্ত্রস্ত হয়ে পড়েন রোগী এবং রোগীর আত্মীয়ারা। ওষুধের দোকানে এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের জেরে পুরো কলেজ চত্বর কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায়। তার জেরে অসুস্থ হয়ে পড়তে শুরু করেন রোগীরা। এদের মধ্যে এমনও রোগী ছিল যাদের অক্সিজেন চলছিল। ঘটনার পরেই ওই সব রোগীদের একটা বড় অংশকে তাদের ওয়ার্ড থেকে নীচে নামিয়ে আনেন। প্রথম অবস্থায় তাদের আইসিইউ-তে নিয়ে যাওয়া হলেও সেখানে জায়গা পর্যাপ্ত না হওয়ায় তাঁদের খোলা আকাশের তলায় মাটিতে রাখা হয়। এইরকমই একজন রোগী ছিলেন সইদুল ইসলাম মল্লিক। আগুন লাগার জেরে এই হুড়োহুড়িতে মৃত্যু হয়েছে তার। জানা যাচ্ছে, হুগলির বাসিন্দা সইদুল ইসলাম মল্লিক মেডিসিন বিভাগে ভর্তি ছিলেন। আগুন লাগার পর সউদুলকে হাঁটিয়ে বাইরে বার করেন তার ছেলে। বেশকিছুক্ষণ রাস্তায় পড়ে থাকার পর এমার্জেন্সিতে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁর মৃত্যু হয় বলে জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here