মহানগর ডেস্ক: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত গোটা দেশ। এর মধ্যেই পাঞ্জাবী নববর্ষ উদযাপন করতে ভারত থেকে পাকিস্তানে গিয়েছিলেন ৮০০ জন শিখ তীর্থযাত্রী। তাঁদের মধ্যে ১০০ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে দেশে ফিরলেন।

১৯৭৪ সালের প্রোটকল অনুযায়ী প্রতি বছর পাঞ্জাবী নববর্ষে শিখরা লাহোরের গুরুদ্বারে তীর্থ করতে যান। এই বছর করোনা সংক্রমণের কারণে ১১০০ জনকে পাকিস্তানে যাওয়ার ছাড়পত্র দেয় পাকিস্তান হাই কমিশন। তবে চলতি বছরে লাহরে গিয়েছিলেন ৮০০ জন। পাঞ্জাব প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, যারা পাকিস্তানে গিয়েছিলেন তাঁদের ৩৫০ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয় যার মধ্যে ১০০ জন করোনা পসেটিভ। ভারতের বিদেশমন্ত্রকের তরফ থেকে যোগাযোগ রাখা হয়েছে এই তীর্থযাত্রীদের সঙ্গে। যাতে তাঁরা সুরক্ষিত থাকেন এবং সমস্ত পরিষেবা পান।

প্রসঙ্গত, আছড়ে পড়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে দৈনিক সংক্রমণ।  গত বছর ১৭ সেপ্টেম্বর আমেরিকার দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ছিল ৩ লক্ষ ৭ হাজার। যা ছিল দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে বিশ্বে সর্বোচ্চ। দৈনিক করোনা সংক্রমণের সেই রেকর্ড ভেঙে আজ শীর্ষে উঠে এল ভারত। মোট ৩ লক্ষ ১৫ হাজারে দাঁড়াল দৈনিক করোনা সংক্রমনের সংখ্যা। পরিসংখ্যান বলছে প্রতি সেকেন্ডে করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে ৪ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here