মহানগর ওয়েবডেস্ক: ক্যাসিনোতে জুয়া খেলছে ১২ বছরের একটি বাচ্চা মেয়ে! এমন বিচিত্র কাণ্ডের কথা শুনে সকলেই বেশ হকচকিয়ে গেলেও বিস্ময়ের আরও কিছু বাকি ছিল। বিষয়টি নিয়ে সোরগোল পড়ে যাওয়ায় তদন্ত শুরু হতে জানা গিয়েছে, সেই মেয়েকে লুকিয়ে ক্যাসিনোতে জুয়া খেলতে নিয়ে এসেছিল তারই বাবা–মা। ঘটনাটি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে।

নিউ সাউথ ওয়েলশ–এর মদ ও জুয়া নিয়ন্ত্রক দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, দেশের সবথেকে বড় ক্যাসিনো ‘দ্য স্টার সিডনি’কে এই ঘটনার জন্য ৬৪,৫০০ মার্কিন ডলার (প্রায় ৯০ হাজার অস্ট্রেলীয় ডলার) জরিমানা করা হয়েছে। এর আগেও দু’বার এখানে অপ্রাপ্তবয়স্ককে জুয়া খেলতে দেওয়া হয়েছিল এবং তাদের মদও পরিবেশন করা হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে।

সিসি টিভি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গিয়েছে নিরাপত্তা রক্ষীর নজর এড়ানোর জন্য ১২ বছরের মেয়েকে নিয়ে তার মা ক্যাসিনো থেকে বেরিয়ে যাওয়ার গেট দিয়ে ক্যাসিনোতে প্রবেশ করে। তারপর বাবা ও মা’র সঙ্গে তাকেও ১৭ মিনিট ধরে জুয়া খেলতে দেখা যায়। এর মধ্যে অন্তত ২৪ বার সে বিভিন্ন পোকার মেশিনে বাজি রেখে জুয়া খেলে। এই প্রসঙ্গে মদ ও জুয়া নিয়ন্ত্রক দফতরের চেয়ারম্যান ফিলিপ ক্রফোর্ড সাংবাদিকদের বলেন, ‘’যে বেআইনি পদ্ধতিতে মেয়েটির অভিভাবকরা তাকে ক্যাসিনোতে ঢুকিয়েছে সেটা অত্যন্ত বিস্ময়কর।‘’

নিয়ন্ত্রক সংস্থার তদন্তকারী অফিসার ডেভিড বায়ার্ন জানিয়েছেন, ক্যাসিনো থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পথ দিয়ে যে কেউ ক্যাসিনোতে প্রবেশ করতে পারে সেটা কর্তৃপক্ষের আগেই বোঝা উচিত ছিল। তাছাড়াও ‘’একটি বাচ্চা মেয়ে পোকার মেশিনে জুয়া খেলছে সেটা চোখে পড়ার যথেষ্ট সুযোগ কর্মীদের ছিল। যখন সেই পরিবার ক্যাসিনো ছেড়ে বেরিয়ে যাচ্ছে সেই সময় ঘটনাটি তাদের নজরে আসে।‘’

এর আগে ১৬ বছরের একটি মেয়ে ভিআইপি গেট দিয়ে এক মধ্যবয়স্কের সঙ্গে ক্যাসিনোতে এসেছিল। সেই সময়েও তার কাছে কোনও পরিচয় পত্র চাওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। পরে সেই মেয়েটি ক্যাসিনো বারে তার লার্নার ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখালে তাকে মদ পরিবেশন করা হয়। সেই মেয়েটিও নিশ্চিন্তে ক্যাসিনোতে ছিল এবং ধরাও পড়ত না যদি না সে ক্যাসিনোর নাইট ক্লাবে প্রবেশ করার চেষ্টা করত। সেখানকার নিরাপত্তা রক্ষী মেয়েটির পরিচয়পত্রের সঙ্গে তার কিছু অমিল দেখতে পায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here