international news

Highlights

  • ১৮ ঘণ্টা বরফের তলায় চাপা পড়ে থেকেও জীবন ফিরে পেয়েছে সে
  • পাক অধিকৃত কাশ্মীরের নীলম উপত্যকার ঘটনা
  • তুষারধসে ইতিমধ্যেই মারা গিয়েছে ৭৪ জন

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিস্ময়ের পরেও যদি কিছু থেকে থাকে তবে তা এই বালিকার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। ১৮ ঘণ্টা বরফের তলায় চাপা পড়ে থেকেও জীবন ফিরে পেয়েছে সে। ঘটনাটি ঘটেছে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। এই ‘বিস্ময় বালিকা’র নাম শামিনা, তার বয়স মাত্র ১২ বছর। পাক অধিকৃত কাশ্মীরের নীলম উপত্যকার ঘটনা। সেখান তুষারধসে ইতিমধ্যেই মারা গিয়েছে ৭৪ জন।

শামিনার মা জানিয়েছেন, তুষারধস যে সময়ে আসে তখন তাদের বাড়ি থেকে বেরনোর সময়টুকু ছিল না। তবুও তারা কোনওভাবে বেরতে পারলেও তার মেয়ে বেরতে পারেনি। বাড়ির ওপর তুষারধস থাবা বসালে সঙ্গে সঙ্গে তার তলায় চাপা পড়ে যায় সবকিছু। মেয়েকে ফিরে পাওয়ার আশা প্রায় ছেড়ে দিয়েছিল পরিবার। সকলে ভেবেছিল শামিনা হয়তো আর বেঁচে নেই। কিন্তু উদ্ধারকাজ শুরু হওয়ার পর যে কজনকে উদ্ধার করা হয়েছে তাদের মধ্যে শামিনা রয়েছে। সকলকেই আকাশপথে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে নিকটবর্তী হাসপাতালে।

জানা গিয়েছে, ওই এলাকায় তুষারধস নামলে বাড়ি চাপা পড়ে প্রায় ১৮ জন মারা গিয়েছে। তবে ১২ বছরের শামিনা বেঁচে ফিরে আসায় পরিবারের লোকেরা আনন্দে আত্মহারা। তারা এই ঘটনাকে ‘অভাবনীয়’ বলেই উল্লেখ করছে। যদিও প্রাণে বাঁচলেও একটা পা ভেঙে গিয়েছে তার, মুখ দিয়ে রক্তক্ষরণও হয়েছে। এখন তার পূর্ণ সুস্থতার কামনা করছে সকলে। তবে জানা গিয়েছে, এই ঘটনায় শামিনা তার দুই ভাই-বোনকে হারিয়েছে।

পাক প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, বিগত কিছুদিনে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে তুষারপাত এবং তুষারধসের ঘটনায় কমপক্ষে ১০০ জন মারা গিয়েছে। তুষারধস কবলিত এলাকাগুলি ইতিমধ্যেই খালি করা হয়েছে এবং যে সব এলাকায় তুষারধসে আশঙ্কা করা হচ্ছে সেখানেও আগাম প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এ বছরের যে প্রবল শীত তাতে বেশকিছু মাস যাবৎ তুষারপাতের পরিমাণ বেড়েছে। জম্মু-কাশ্মীরেও প্রবল তুষারপাত এবং তুষারধসে একাধিক দুর্ঘটনা ঘটেছে। বরফে হড়কে পাকিস্তানে পড়ে গিয়েছেন ভারতীয় জওয়ান এমন ঘটনাও বাদ যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here