ডেস্ক: রাষ্ট্রপুঞ্জের ইতিমধ্যে বহুবার কোনঠাসা হয়েছে পাকিস্তান। জঙ্গি ইস্যুতে এবার রীতিমতো দেওয়ালে পিঠ ঠেকল ভারতের এই প্রতিবেশী রাষ্ট্রের। সম্প্রতি রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফে প্রকাশ করা হয়েছে জঙ্গি তালিকা। সেই তালিকায় ১৩৯ জন জঙ্গির নাম উঠল পাকিস্তানের। সেই তালিকায় রয়েছে লস্কর-ই-তৈবা, জইস-ই-মহম্মদ সহ একাধিক জঙ্গিগোষ্ঠী।

পাকিস্তান যখন বারে বারে দাবি করে আসছে তারা সন্ত্রাসের শিকার ঠিক সময়ই এই তালিকা প্রকাশ করল রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ। যে তালিকায় সবার উপরে রয়েছে আল–কায়দার নতুন প্রধান আয়মান–আল–জওয়াহিরি। এছাড়া এই তালিকায় রয়েছে মুম্বই হামলার অন্যতম চক্রী আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন দাউদ ইব্রাহিম। ভারত ছাড়ার পর দাউদ পাকিস্তানে গিয়ে আশ্রয় নেয়। সেখানে আইএসআই দাউদকে আশ্রয় দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফে বলা হয়েছে একাধিক পাকিস্তানি পাসপোর্ট রয়েছে দাউদের আর সেগুলি রাওয়ালপিন্ডি ও করাচি থেকে ইস্যু করা হয়েছে। এছাড়াও জঙ্গি তালিকায় রয়েছে লস্কর–ই–তৈবার হাফিজ সইদ, তার সহযোগি আব্দুল সালাম এবং জাফার ইকবালের নামও। শুধু তাই নয় হাফিজ সইদের রাজনৈতিক দল মিল্লি মুসলিম লিগের অনেকেও রয়েছে এই তালিকায়। আছে আমেরিকায় ৯/১১-র মাস্টারমাইন্ড অসামাবিন লাদেনের সহযোগী আয়মান আল-জাওয়াহিরি। সবমিলিয়ে এই তালিকা দীর্ঘতর।

উল্লেখ্য, বহু বছর ধরে পাকিস্তানে আশ্রয় নেওয়া জঙ্গিদের বিরুদ্ধে বারে বারে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলে এসেছে পাকিস্তান। কিন্তু ব্যবস্থা নেওয়া তো দুরের কথা উল্টে আমেরিকার পাওয়া অর্থ দিয়ে জঙ্গিদের সাহায্য করা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। সবমিলিয়ে পাকিস্তানকে অর্থ সাহায্য দেওয়াও বন্ধ করেছে আমেরিকা। ঠিক তারপর রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফে যে তালিকা এদিন প্রকাশ করা হল তাতে নিঃসন্দেহে চাপে পড়েছে জঙ্গি আশ্রয়দাতা পাকিস্তান।