corona india

মহানগর ডেস্ক: অস্বস্তিতে রাখছে দেশের করোনা সংক্রমণ। গত কাল দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা কম থাকলেও, বুধবার ফের ঊর্ধ্বগামী। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্টে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ১৫ হাজার মানুষ। তার মধ্যে ৮০.৩৩ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দেশের পাঁচটি শহর থেকে। দেশে এই মুহূর্তে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা এক লক্ষ ৭০ হাজারের বেশি।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ৯৮৯ জন। করোনায় মারা গিয়েছেন ৯৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ১২৩ জন। যার জেরে দেশে ফের অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা কিছুটা বাড়ল।

তবে দেশে করোনা টিকা করণ শুরু হয়ে গিয়েছে। ভারতে এখনও পর্যন্ত এক কোটি ৫৬ লক্ষ ২০ হাজার ৭৪৯ জনকে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। সোমবার সকালে করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার ঠিক পরের দিন, অর্থাৎ মঙ্গলবার করোনার ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন।

করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার আধ ঘণ্টার মধ্যেই টুইট করেন হর্ষবর্ধন। তিনি লেখেন, ‘ষাটোর্ধ্ব ও ৪৫ ওপরে কো-মর্বিটি যুক্ত সমস্ত নাগরিককে করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য আবেদন করছি। সরকারি বা বেসরকারি যে কোনও জায়গা থেকে এই ভ্যাকসিন নিতে পারেন।’ তিনি দাবি করেন, এই করোনার ভ্যাকসিন ‘সঞ্জিবনী’ প্রমাণিত হতে পারে সকলের জন্য। হর্ষবধর্নের সঙ্গে তাঁর স্ত্রীও করোনার টিকা নিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

সোমবার থেকে করোনার ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় পর্যায় শুরু হয়েছে। সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতালেও এখন করোনার ভ্যাকসিন পাওয়া যাচ্ছে। করোনার ভ্যাকসিন নিতে গেলে আগে নাম নথিভুক্ত করতে হচ্ছে। সোমবার এইমসে করোনার টিকা নেওয়ার পর টুইটে প্রধানমমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লেখেন, ‘এইমস থেকে আমি করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছি। করোনা মোকাবিলা করতে চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীরা যে শক্তি দেখিয়েছেন, তাতে আমি অবিভূত। দ্বিতীয় পর্যায়ের করোনার ভ্যাকসিনের জন্য যাঁদের নাম নথিভুক্ত করা হয়েছে, তাঁদের স্বাগত।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here