Home Featured ‘জরিমানা তুলে ১ মাসে প্রায় ১.৫ কোটি টাকা আয় করল কেন্দ্র’, ‘অমানবিক’ বলে দাবি অনেকের

‘জরিমানা তুলে ১ মাসে প্রায় ১.৫ কোটি টাকা আয় করল কেন্দ্র’, ‘অমানবিক’ বলে দাবি অনেকের

0
‘জরিমানা তুলে ১ মাসে প্রায় ১.৫ কোটি টাকা আয় করল কেন্দ্র’, ‘অমানবিক’ বলে দাবি অনেকের
Parul

মহানগর ডেস্ক: করোনার জন্য যাতায়াত ব্যাবস্থা নিয়ে সমস্যা, এখন প্রায় অভ্যেস হয়ে গিয়েছে।  কোরোনা রং বিভিন্ন ঢেউ সামলাতে অন্যান্য ব্যাবস্থার মত বন্ধ ছিল ট্রেন চলাচল‌ও। সেই যে লোকাল ট্রেন বন্ধ হয়েছে, তা এখনও পর্যন্ত চালু  করা হয়নি। এর ঘটনার প্রভাব সবথেকে বেশী লক্ষ করা যাচ্ছে সমাজের শ্রমিক শ্রেণীর ওপরে। এই যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতা তাঁদের জীবনকে আরো দূর্বিসহ করে তুলেছে। 

       শহরতলির সঙ্গে কলকাতা শহরের যোগাযোগ এককথায় বিচ্ছিন্ন, এই ট্রেন চলাচল বন্ধ হ‌ওয়ার ফলে। চলছে হাতে গোনা কিছু স্টাফ স্পেশাল। জরুরী ব্যাবস্থার সঙ্গে রক্ত ব্যক্তিদের উদ্দেশ্যেই চালু করা এই কিছু ট্রেন।  কিন্তু এই পরিস্থিতির মধ্যেও রেলের কোষাগার ভরে গিয়েছে বলেই দাবি অনেকের। সূত্রের খবর অনুযায়ী, স্টাফ স্পেশালে অবৈধভাবে যাত্রার অভিযোগে গত একমাসে দেড় কোটি টাকার বেশি জরিমানা তুলেছে পূর্ব রেল। অনুমান প্রায় ৫০ হাজার জনের থেকে আদায় করা হয় এই জরিমানা।

 

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য গত মে মাস থেকে রাজ্যে বন্ধ রয়েছে লোকাল ট্রেন চলাচল। কিন্তু, জরুরী পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের নিয়ে চালানো হচ্ছিল কিছু লোকাল ট্রেন।

     

           পূর্ব রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, একমাসে জরিমানা আদায় করা হয়েছে প্রায় ৫০ হাজার যাত্রীদের থেকে। গত জুন মাসে জরিমানা থেকে উঠে আসে প্রায় ১ কোটি ৬৯ লক্ষ টাকা। নিয়ম না মেনে যাত্রা করার জন্যই যাত্রীদের  এই জরিমানা দিতে হয়েছে।

    

অবৈধভাবে ট্রেন ব্যাবহার করার জন্য জরিমানার এই সিদ্ধান্তকে কেউ অন্যায় বা ভূল না বললেও, বর্তমান সময়ে এই সিদ্ধান্তকে অত্যন্ত ‘অমানবিক’ বলেই মনে করছেন নিত্যযাত্রীরা। এরকম একটা অসহায় পরিস্থিতিতে যেখানে সমাজের সকলেই প্রায় নানা সমস্যার মধ্যে দিয়ে দিন কাটাচ্ছেন, এবং নিরুপায় হয়ে বহু মানুষকেই বৈধ নথি ছাড়াই স্টাফ স্পেশালে  যাতায়াত করতে হচ্ছে, ‘তখন এভাবে জরিমানা আদায় করে কি আরও সমস্যার মধ্যে ফেলে দেওয়া হচ্ছে না যাত্রীদের?’এই প্রশ্নই তুলতে শুরু করেছেন নিত্যযাত্রীদের অধিকাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here