মহানগর ওয়েবডেস্ক: চেষ্টা চলছে দীর্ঘদিন ধরে তবে জঙ্গিদের অনুপ্রবেশের চেষ্টা বানচাল করতে সদাতৎপর ভারতীয় সেনা। এদিন তারই এক নমুনা ফুটে উঠল জম্মু-কাশ্মীরের নৌশেরা সেক্টরে। সেনার চোখে ফাঁকি দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করতে গিয়ে বেঘোরে মারা পড়ল ২ পাক জঙ্গি। ঘটনায় আহত হয়েছে আরও এক জঙ্গী। এদিন সকালে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয় এমনটাই জানালো ভারতীয় সেনা।

সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সেনা মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল দেবেন্দ্র আনন্দ জানান, একজন জঙ্গীও যাতে ভারতে প্রবেশ করতে না পারে সেটা সুনিশ্চিত করব আমরা। ঘটনার ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, সোমবার রাত্রি ১১টা নাগাদ তিনজন পাক জঙ্গী অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে নৌশেরা সেক্টরের বিপরীতে কালাল এলাকা থেকে। ওই জঙ্গিদের কোনও একজনের পা পড়ে যায় সীমান্তবর্তী এলাকায় মাটিতে পুঁতে রাখা ল্যান্ড মাইনে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় দুই জঙ্গির আহত হয়েছে আরও একজন। আর এই গোটা ঘটনা ঘটেছে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। প্রবল বর্ষার কারণে মাটি ধুয়ে ল্যান্ডমাইন গুলো কিছুটা বাইরে চলে এসেছে। পুঁতে রাখা সেই লাইন মাইনেই পা পড়ে জঙ্গিদের যার জেরেই এই ঘটনা ঘটে। আমাদের সেনাবাহিনী দেখেছে জঙ্গিদের দেহ পড়ে রয়েছে সীমান্তের ওপারে।

জানা গিয়েছে মৃত ওই দুই জঙ্গি লস্কর-ই-তৈবা সদস্য। এদের মধ্যে একজনের পরিচয় জানতে পেরেছে সেনাবাহিনী। তার নাম আবিদ হোসেন। পিতার নাম খাদিম হোসেন। তার ঠিকানা পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ভিমবার জেলার বাকশর এলাকার নালী গ্রামে। প্রসঙ্গত সীমান্তের ওপারে দীর্ঘদিন ধরে অনুপ্রবেশকারীরা সক্রিয় হয়ে রয়েছে সে খবর আগেই এসেছিল সেনাবাহিনীর কাছে। প্রায় শতাধিক জঙ্গী একাধিক সেক্টরে অপেক্ষা করছে অনুপ্রবেশের জন্য। তবে উপত্যাকায় আরো বেশি করে সন্ত্রাসবাদি কার্যকলাপ ছড়িয়ে দেওয়ার আগেই নিকেশ হতে হচ্ছে জঙ্গিদের। কখনো সেনার হাতে তো কখনো অপরাধের কুফল হিসেবে প্রকৃতির রোষে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here