নিজস্ব প্রতিবেদক, হাবড়া: গত সোমবার পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন হাবড়ার যশুর এলাকায় দুষ্কৃতীদের হাতে খুন হয়েছিলেন দুই তৃণমূল সমর্থক। সেই খুনের ঘটনার তদন্তভার এবার উঠল সিআইডির হাতে। দুই তৃণমূল সমর্থককে পিটিয়ে মারার ঘটনার তদন্তে নামলেন সিআইডির বিশেষ তদন্তকারী দশ জনের প্রতিনিধি দল।

শনিবার সিআইডির ওই প্রতিনিধি দল হাবরা থানায় আসেন। সেখান থেকে হাবড়া থানার পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে যশুর এলাকায় যান। যে স্থানে ওই দুই তৃনমূল সমর্থক খুন হয়েছিলেন সেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন তারা। স্থানীয় দু একজনের সঙ্গে কথাও বলেন সিআইডির তদন্তকারী দল। এরপর হাবড়া পুরসভার আঠারো নম্বর ওয়ার্ডে দক্ষিণ হাবড়ায় নিহত দুই তৃণমূল সমর্থকের বাড়িতে যান তাঁরা। সেখানে মৃতদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন তাঁরা। প্রথমে মৃত উজ্জ্বল সুরের বাড়িতে যায় সিআইডির। সেখানে সিআইডির প্রতিনিধি দলকে দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন উজ্জ্বলের স্ত্রী। সেদিনের ঘটনার প্রসঙ্গ তুলে ধরে নৃশংস খুনের প্রতিবাদ জানিয়ে দোষীদের কড়া শাস্তির দাবিও জানান তদন্তকারী অফিসারদের কাছে। এই খুনের ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপের দাবি জানান তিনি। সেখান থেকে সিআইডির দলটি মৃত অপর তৃনমূল সমর্থক সুশীল দাস ওরফে পক্কোর বাড়িতে যায়। সিআইডির দল এদিন সুশীল দাসের মায়ের দেখা পায়নি। তবে মৃতের দুই দাদার সঙ্গে কথা বলে ঘটনার বিবরণ শোনেন তাঁরা।

প্রসঙ্গত,
সোমবার পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন হাবড়ায় দুষ্কৃতীদের হাতে খুন হন তৃণমূল সমর্থক সুশীল দাস ও উজ্জ্বল সুর। সেই ঘটনার তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই এক দুষ্কৃতিকে গ্রেপ্তার করেছে হাবড়া থানার পুলিশ। বর্তমানে ধৃত ওই দুষ্কৃতী পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। সেই ঘটনায় অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেপ্তারের জন্য এবার তদন্তভার গ্রহণ করল সিআইডি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here