ডেস্ক: গত কয়েকমাস ধরেই সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন ও জঙ্গি হামলায় বিধ্বস্ত উপত্যকা। এরইমাঝে সতর্কবার্তা জারি করল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক, জম্মু কাশ্মীর সীমান্ত পেরিয়ে প্রায় ২০ জন জঙ্গি অনুপ্রবেশ ঘটেছে। যে কোনও সময় ঘটতে পারে বড়সড় নাশকতা। আর তার জেরেই রেড এলার্ট জারি করা হয়েছে দিল্লি সহ ভারতের একাধিক রাজ্যে।

জানা যাচ্ছে, ২০ টি জঙ্গির এই দল জইশ-ই-মহম্মদের সদস্য। যার নেতৃত্বে রয়েছে মুম্বই হামলার অন্যতম চক্রী মৌলানা মাসুদ আজহার। ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে গিয়ে আগামী ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যেই বড়সড় হামলা চালাতে প্রস্তুত হচ্ছে এই দলটি। পরিস্থিতি সামাল দিতে সেনা সূত্রে জানা যাচ্ছে, জম্মু কাশ্মীরের যে সমস্ত এলাকাগুলিতে সেনাবাহিনী অপেক্ষাকৃত দুর্বল সেই এলাকাগুলিতে সেনাবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করার চেষ্টা চলছে। জঙ্গিদের খোঁজ পেতে জম্মু কাশ্মীর সহ রাজ্যের বিভিন্ন হোটেল ও গেস্ট হাউসগুলিতে শুরু হয়েছে জোর তল্লাশি।

উল্লেখ্য, বিগত কয়েকমাসে একাধিকবার জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটেছে উপত্যকায়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাশ্মীর সফরের সময়ও বন্ধ হয়নি জঙ্গি হামলা। একাধিক হামলার জেরে শহীদ হয়েছেন বহু সেনা ও পুলিশকর্মী। বৃহস্পতিবার রাতেও কাশ্মীরে টহলরত সিআইপিএফের গাড়ি লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছোড়ে জঙ্গিরা। হামলা চালানো হয় পুলওয়ামা সেনা ক্যাম্পেও। এবার বড়সড় হামলার আশঙ্কার প্রহর গুনছে উপত্যকা সহ বাকি রাজ্যগুলি।