news bengali national

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশের ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সন্দেহের আঙুলটা উঠেছিল তাদের দিকেই। আজও নামানো যায়নি সে আঙুল। এমন অবস্থাতেই ধর্মকে ছাপিয়ে মানবিকতার নজির গড়লেন ২০০ জন তাবলিঘি জামাত সদস্য। করোনা থেকে সেরে উঠি দান করলেন নিজেদের রক্তের প্লাজমা। যাতে ভয়াবহ এ বিপদ কাটিয়ে সেরে উঠতে পারেন বাকিরা। দিল্লির লোক নায়ক হাসপাতালের পর প্লাজমা থেরাপির পথে হাঁটতে শুরু করেছে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকাল সায়েন্সেস। সেখানেই সোমবার থেকেই শুরু হয়েছে তবলিঘি জামাতের ২০০ জন সদস্যের প্লাজমা সংগ্রহের কাজ। ইতিমধ্যে ২৫ জনের প্লাজমা সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

দিল্লির লোকনায়ক হাসপাতালে ৬ জন করোনা রোগীরা প্লাজমা থেরাপি করা হয়েছে বলে আগেই জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। শুধু তাই নয় সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষদের কাছে তিনি আবেদন জানিয়েছিলেন প্লাজমা দান করার জন্য। মুখ্যমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে এগিয়ে গেলেন দেশজুড়ে কার্যত খলনায়ক উপাধি পাওয়া তবিলিঘি জামাতের ২০০ জন সদস্য। এই সমস্ত দাতাদের রক্তের প্লাজমা আক্রান্ত শরীরে প্রবেশ করাবেন চিকিৎসকরা। আশা করা হচ্ছে এর মাধ্যমে সুস্থ হয়ে উঠবেন রোগীরা।

এ প্রসঙ্গে, AIIMS-এর মেডিকাল সুপার ডা ডি কে শর্মা জানান, ‘আমরা বেশ কয়েকজন দাতার থেকে প্লাজমা সংগ্রহ করেছি। এবার আমরা উপযুক্ত গ্রহিতার অপেক্ষায়। এমন এক রোগীর প্রয়োজন যিনি ইনটেন্সিভ কেয়ার ইউনিটে রয়েছেন, অথচ প্লাজমা থেরাপি সহ্য করতে পারবেন।’গুরুতর অবস্থায় থাকা রোগীদের শরীরে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করতে সক্ষম রক্তের প্লাজমা প্রবেশ করিয়ে তার শরীরে এন্টিবডি তৈরি করা হয়। ওষুধ কিংবা কোন ভ্যাকসিন নয় এই পদ্ধতিকে কাজে লাগিয়েই করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয়ের স্বপ্ন দেখছে ভারত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here