বাতিলের পথে ২ হাজারের নোট, অবসরের ৮ দিন পর বিস্ফোরক প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থসচিব

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ৫০০, ১০০০ অতীত হয়েছে ৩ বছর হল। মোদী সরকারের ঐতিহাসিক সেই সিদ্ধান্তের জের আজ ভয়ঙ্করভাবে প্রভাব ফেলেছে দেশের অর্থনীতিতে। বিরোধী রাজনৈতিক নেতৃত্ব থেকে শুরু করে দেশের তাবড় তাবড় অর্থনীতিবিদদের দাবি এমনই। এহেন পরিস্থিতিতেই এবার জল্পনা চড়ল বাতিল হয়ে যেতে চলেছে ২০০০ টাকার নোটও। অন্য কেউ এমনই জল্পনা তৈরি করলেন দেশের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থসচিব সুভাষ চন্দ্র গর্গ।

গত ৩১ কেন্দ্রীয় অর্থ সচিব পদ থেকে অবসর নিয়েছেন সুভাষ দত্ত। অবসরের ৮ দিন কাটতে না কাটতেই এদিন টুইট করে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসলেন তিনি। তাঁর দাবি, ‘কোনও সমস্যা ছাড়াই বাজার থেকে তুলে নেওয়া হচ্ছে ২ হাজার টাকার নোট। ফলে বড় সংখ্যায় ২ হাজারের নোট আর মিলবে না বাজারে। ধীরে ধীরে তার প্রায় সবটাই তুলে নেওয়ার চেষ্টা চলছে। এমন সম্ভাবনাও রয়েছে যে আগামী কালে তা বাতিল করা যেতে পারে। নিজের টুইটে তিনি দেশবাসীকে ২ হাজারের নোট ব্যাঙ্কে ফিরিয়ে দেওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, নিজের অবসরকে ‘হঠাৎ’ অবসর হিসাবে আখ্যাও দিয়েছেন তিনি।


উল্লেখ্য, ৮ নভেম্বর ২০১৬ অর্থাৎ ঠিক আজকের দিনেই রাত্রি ৮ টার সময় হঠাৎ দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেছিলেন ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল করা হচ্ছে। মোদী সরকারের সেই সিদ্ধান্তের জেরে বিতর্ক কম হয়নি। যদিও সেই ঘটনার আসল রূপ দেখা গিয়েছে বর্তমান সময়ে। বিরোধী তথা দেশের অর্থনীতিবিদদের দাবি, দেশের অর্থনীতির এই করুণ হালের জন্য দায়ী মোদী সরকারের নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত। এরই মাঝে এবার ২০০০ টাকার নোটও বাতিল হবে বলে জল্পনা বাড়ালেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থসচিব সুভাষ চন্দ্র গর্গ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here