kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: নির্বাচনের মুখে ফের উত্তপ্ত বীরভূমের নানুর। এলাকার সিঙ্গি গ্রাম থেকে ২৫টি তাজা বোমা উদ্ধার করল পুলিশ। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূলে আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাদের কর্মীদের বাড়ির কাছে বোমাগুলি রেখে দেয়। যদিও তৃণমূল সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সিঙ্গি গ্রামের দেওয়াল লিখনকে কেন্দ্র করে বিজেপি ও তৃণমূলের মধ্যে বিবাদ শুরু হয়। বিজেপির দাবি, তাদের দেওয়াল তৃণমূলিরা জোর করে দখল করে নিচ্ছে। এর প্রতিবাদ করাতেই তৃণমূলে আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বোমা নিয়ে বিজেপি কর্মীদের ফাঁসাতে তাদের বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় রেখে দিয়ে গিয়েছে। বোমাগুলি উদ্ধারের পর পুলিশের সেগুলি নিষ্ক্রিয় করবে।

প্রতিবার ভোটের সময় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বীরভূমের নানুর। বোমা-গুলির লড়াইয়ে রক্ত ঝরে। মৃত্যুর ঘটনাও ঘটে। সাম্প্রতিক কালে এখানে তৃণমূলের সঙ্গে ঝামেলা বাধছে বিজেপির। বিজেপির তরফে বলা হচ্ছে, নিজেদের জমি হারিয়ে তৃণমূল এখন বিরোধীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। এলাকা সন্ত্রস্ত করে রাখছে। যদিও, তৃণমূল এই অভিযোগ মানতে নারাজ। তাদের দাবি, বিজেপি এখানে নিজেদের জায়গা করার জন্য অশান্তি পাকানোর চেষ্টা করছে।

আসন্ন ভোটে হিংসা-দীর্ণ বীরভূমের নানুরে শান্তি বাজায় রাখা কঠিন প্রশাসনের কাছে। কারণ, প্রতিবারই এখানে ভোট ঘিরে নানা অশান্তি হয়। এবার নানুর-সহ গোড়া বীরভূম জেলায় বিশেষ নজর থাকবে কমিশনের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here