kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সারা বিশ্বের মোট যক্ষ্মা রোগীর মধ্যে ২৭ শতাংশ রোগীর বাস ভারতে। ভয়ঙ্কর এই রোগে বিশ্বের মধ্যে বিশ্বের মধ্যে শীর্ষ স্থানটা এমনভাবেই পাকা করে নিয়েছে ভারত যে আগামী বহু বছর ভারতকে ছুঁতে পারবে না অন্য কোনও দেশ। কারণ, তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা চিনে এই সংখ্যাটা মাত্র ৯ শতাংশ। গোটা বিশ্বে এই মুহূর্তে যক্ষ্মা রোগীর সংখ্যা প্রায় ১ কোটি।

গত বৃহস্পতিবার বিশ্বে যক্ষ্মার বর্তমান অবস্থা নিয়ে এক রিপোর্ট পেশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু(WHO)। তাদের রিপোর্ট অনুযায়ী, গোটা বিশ্বে ১ কোটি যক্ষ্মা রোগীর মধ্যে ২০১৮ সালে ভারতে নথিভুক্ত যক্ষ্মা রোগীর সংখ্যা ২৬.৯ লক্ষ। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চিন। বিশ্বের মধ্যে ৯ যক্ষ্মা রোগির বাস সেখানে। তিনে রয়েছে ইন্দোনেশিয়া এরপর ফিলিপিন্স। ৫ নম্বরে রয়েছে পাকিস্তান ও সাতে বাংলাদেশ। বাংলাদেশে যক্ষ্মারোগীর সংখ্যা ৬ শতাংশ। হু-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৭ সালে গোটা বিশ্বে ১৬ লক্ষ মানুষ যক্ষ্মায় মারা গিয়েছেন। ২০১৮ সালে যক্ষ্মায় মৃত্যু সংখ্যা কমে হয় ১৫ লক্ষ। কিন্তু চিন্তা কাটছে না।

তবে যক্ষ্মা রোগে ভারত বিশ্বের বদনাম কুড়ালেও আশার কথা একটাই যে আগের তুলনায় দেশে যক্ষ্মা রোগীর সংখ্যা অনেক কমিয়ে ফেলেছে ভারত। হু-য়ের রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৭ সালে যেখানে নথিভুক্ত যক্ষ্মারোগীর সংখ্যা ছিল ২৭.৪ লক্ষ, সেখানে ২০১৮ সালে তা নেমে এসেছে ২৬.৯ লক্ষে। সরকারও যক্ষ্মা রোগ দেশ থেকে নির্মূল করতে উঠে পড়ে মাঠে নেমেছে। চিকিৎসা ক্ষেত্রে বিপুল অর্থ বরাদ্দের পাশাপাশি ২০২৫ সালের মধ্যে দেশকে যক্ষ্মামুক্ত করার ডাক দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here