national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাসে ভারতে দ্বিতীয় মৃত্যুর ঘটনা ঘটে গেল। প্রথমে ছিল কর্ণাটক এবা দিল্লি। বৃহস্পতিবার কর্নাটকে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয় করোনাভাইরাসে। এর ঠিক চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দিল্লির জনকপুরীর বাসিন্দা ৬৮ বছর বয়সি এক বৃদ্ধার মৃত্যু হল। সর্দি-কাশি এবং উচ্চ রক্তচাপ নিয়ে ৮ মার্চ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। জানা গিয়েছে, কয়েক দিন আগে সুইৎজারল্যান্ড ও ইতালি থেকে দেশে ফেরেন আক্রান্ত ওই বৃদ্ধার ছেলে। পরে জানা যায়, তিনি করোনায় আক্রান্ত। তাঁর থেকেই আক্রান্ত হন ওই বৃদ্ধা। সবমিলিয়ে ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তে সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৮৩। দু’জনের মৃত্যুর ঘটনায় দেশে আতঙ্ক যে আরও বেড়ে গিয়েছে তাতে কোনও সন্দেহ নেই।

মুহূর্তের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে সব রাজ্য সরকার। দিল্লিতে ইতিমধ্যেই রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে শুরু করে স্কুল-কলেজ সমস্ত বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, মহারাষ্ট্রে জিম থেকে শপিং মল, সিনেমা হল সব বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে না বেরনোর নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক যদিও আতঙ্কিত হতে বারণ করছে। তাদের তরফে জানানো হয়েছে, অযথা আতঙ্কিত না হয়ে সতর্কতা অবলম্বন করলেই এই সঙ্কট থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। যদিও আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৯০-এর কাছাকাছি হয়ে যাওয়ায় শঙ্কা বাড়ছে বৈ কমছে না। অন্যদিকে, গোটা দেশে এখন প্রায় ৪২ হাজার জনকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে।

করোনার ত্রাস ঢুকে গিয়েছে সুপ্রিম কোর্টেও। নির্দেশিকা দিয়ে জানানো হয়েছে, অতি গুরুত্বপূর্ণ মামলা ছাড়া আরও কোনও মামলা শুনবে না তারা। পরের সপ্তাহ থেকেই এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে জানা গিয়েছে। করোনাভাইরাসের দাপট যাতে কম করা যায় সেইকথা মাথায় রেখে ইতিমধ্যেই নির্দেশিকা জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট। এমনকি আদালতে আইনজীবীদের দেদার আগমনেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

গতকাল বেঙ্গালুরুতে গুগল কর্মীর করোনা ধরা পড়ায় সকল কর্মীদের অফিসে না এসে বাড়ি থেকে কাজ করতে নির্দেশ দিয়েছে গুগল। এদিকে, করোনার ভয়ে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে বেঙ্গালুরুর একটি বিল্ডিং খালি করে দিয়েছে ইনফোসিসও। এই অফিস বিল্ডিং-এর এক কর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। তারপরই এই সিদ্ধান্ত নেয় ইনফোসিস কর্তৃপক্ষ। সবমিলিয়ে করোনা আতঙ্কে জেরবার গোটা দেশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here