kolkata news
Highlights

  •  ৮ মাস আগে রাতের কলকাতা শহরের রাস্তায় জাতীয় স্তরের এক মহিলা বক্সারকে নিগ্রহের ঘটনা
  • ধৃত তিনজনকে মোট ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং মোট ৬ হাজার টাকা জরিমানার নির্দেশ দেয় আদালত
  • এই মামলায় মাত্র ১০ দিনের মধ্যে চার্জশিট পেশ করা হয়েছিল

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ৮ মাস আগে রাতের কলকাতা শহরের রাস্তায় জাতীয় স্তরের এক মহিলা বক্সারকে নিগ্রহের ঘটনায় সাজা ঘোষণা করল আলিপুর আদালত। ইতিমধ্যেই ধৃত তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করেছিলেন বিচারক। এরপর আজ মঙ্গলবার প্রত্যেক দোষীদের দুটি ধারায় এক বছর করে মোট ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং মোট ৬ হাজার টাকা জরিমানার নির্দেশ দেয় আদালত। ধৃতদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৩ এবং ৩৫৪ ধারায় মামলা রুজু করেছিল পুলিশ। এই মামলায় মাত্র ১০ দিনের মধ্যে চার্জশিট পেশ করা হয়েছিল।

প্রায় আট মাস আগে গত বছরের আঠাশে জুন দক্ষিণ বন্দর থানা এলাকার রিমাউন্ট রোডে রাতের অন্ধকারে নিগ্রহের শিকার হন এক মহিলা বক্সার। এই ঘটনার পরই শহরের নারী নিরাপত্তা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠে যায়। প্রশাসনের ভূমিকায় সরব হয় শহরের নাগরিক সমাজ। যদিও এই ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই অভিযুক্ত তিন যুবককে গ্রেফতার করে দক্ষিণ বন্দর থানার পুলিশ। ধৃত তিনজনের নাম রাহুল শর্মা, শেখ ফিরোজ এবং ওয়াসিম খান। পুলিশ সূত্রে খবর, গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রত্যেকেই নিজেদের অপরাধ কবুল করে নেয় তদন্তকারী আধিকারিকদের কাছে।

পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় তৎপরতার সঙ্গে তিন জনকে গ্রেপ্তারের পর বাড়তি গুরুত্ব দিয়ে দ্রুত তথ্য প্রমাণ সংগ্রহ করা হয়। এমনকি লিখিত অভিযোগ দায়ের করার মাত্র ১০ দিনের মধ্যে তদন্ত শেষ করে আদালতে চার্জশিট পেশ করে দক্ষিণ বন্দর থানার পুলিশ। তারপরই আলিপুর আদালতে তিন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে শুরু হয় বিচার প্রক্রিয়া। সেই মামলাতেই মঙ্গলবার রায় ঘোষণা করল আলিপুর আদালত। এদিন তিন অভিযুক্তকেই দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। বিচারক জানান, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৩ ধারায় তিন দোষীকে এক বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং ১ হাজার টাকা জরিমানা এবং ৩৫৪ ধারায় আরও এক বছর কারাদণ্ড এবং ৫ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here