জেলাডেস্ক: ঈদের রাতে রাজ্যের তিন জেলায় তিনটি অস্বাভবিক মৃত্যুর জেরে চাঞ্চল্য ছড়ালো সংশ্লীষ্ট এলাকায়। একটি ঘটনা ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার রায়নায়, একটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদ জেলার ডোমকলে ও অন্যটি আলিপুরদুয়ার জেলার নয়াবস্তি এলাকায়। জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে পূর্ব বর্ধমান জেলার রায়না থানার ছোট কয়রাপুর এলাকায় ঈদের একটি অনুষ্ঠান চলাকালীন সময়ে মোটর সাইকেল নিয়ে বচসার জেরে ব্যাপক বোমাবাজির ঘটনা ঘটে। তাতেই বোমার আঘাতে আনিসুর রহমান মল্লিক(২৭) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়। ঘটনার জেরে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়। পুলিশ ইতিমধ্যে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে গেছে। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ১৫ জনকে আটক করেছে।

অন্যদিকে শনিবার রাতেই মুর্শিদাবাদ জেলার ডোমকল থানার আমিনাবাদ গ্রামে শ্বশুরবাড়িতে রহস্যমৃত্যু হল বাড়ির জামাইয়ের। যদিও মৃত্যুর বিষয়টি সামনে আসে রবিবার সকালে। জানা গিয়েছে, ডোমকল থানার লষ্করপুর গ্রামের বাসিন্দা নুরাবুল ইসলাম(২৬)’র বছর খানেক আগে বিয়ে হয় আমিনাবাদ গ্রামের যুবতি সামিমা খাতুনের সঙ্গে। শনিবার ঈদের দিন বিকেলে সস্ত্রীক শ্বশুরবাড়ি যায় নুরাবুল। রবিবার সকালে তার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে শ্বশুরবাড়ি থেকেই। মৃতের পরিবারের অভিযোগ সামিমার অন্য যুবকের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। আর তার জেরেই নুরাবুলকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য উদ্ধার করেছে ডোমকল থানার পুলিশ। আবার শনিবার রাতেই আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি থানার নয়াবস্তি এলাকার এসএসবি ক্যাম্পে নিজের রাইফেল থেকে নিজের মাথায় গুলি করে আত্মঘাতী হলেন দীনেশ কুমার সিং(২৯) নামে এক এসএসবি জওয়ান। তিনি এসএসবি ৫৩ ব্যাটেলিয়ানের জওয়ান ছিলেন। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here