kolkata news

মহানগর ডেস্ক : কাশ্মীরে খতম তিন জঙ্গি। বাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করেছে এক জঙ্গি। চারজনেই কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন আল বদরের সসদ্য। দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপিয়ান জেলার ঘটনা। আত্মসমর্পণকারী জঙ্গিকে জেরা করে ওই জঙ্গি সংগঠনের চাঁইদের নাগাল পেতে চাইছেন তদন্তকারীরা।

চলতি ছরেও অব্যাহত জঙ্গি অনুপ্রবেশ।নজরদারির ফাঁক গলে এদেশে জঙ্গিদের পাঠিয়ে দিচ্ছে পাক সেনা। তার জেরে জঙ্গি অনুপ্রবেশের বিরাম নেই। 

চলতি বছরের শুরু থেকেই একাধিকবার জঙ্গি নিকেশের ঘটনা ঘটেছে সোপিয়ানে। বদলা নিয়েছে জঙ্গিরাও। সোপিয়ান তো বটেই কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় বেছে বেছে কয়েকটি রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীদের খুন করেছে কুখ্যাত নানা জঙ্গি সংগঠন। পাল্লা জবাব দিয়েছে সীমান্তে প্রহরারত নিরাপত্তা বাহিনীও। যার জেরে নানা সময়ে খতম হয়েছে জঙ্গিরা। তবে আত্মসমর্পণের ঘটনা প্রায় ঘটেনি বললেই চলে।

জানা গিয়েছে, আজ, বৃহস্পতিবার সাত সকালে সোপিয়ানে সংঘর্ষ বাঁধে বাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের। বেশ কিছুক্ষণ লড়াই চলার পর থেমে যায় জঙ্গিদের দিক থেকে গুলি ছোঁড়া। বেশ কিছুক্ষণ ধরে জঙ্গিদের তরফে কোনও সাড়াশব্দ না পেয়ে তল্লাশি চালান বাহিনীর জওয়ানরা। উদ্ধার হয় আল বদরের তিন সদস্যের দেহ। আত্মসমর্পণ করে একজন। তার নাম তৌসিফ আহমেদ। জানা গিয়েছে, মৃত তিন জঙ্গি ও আত্মসমর্পণকারী প্রত্যেকেই দক্ষিণ কাশ্মীরের বাসিন্দা।

দক্ষিণ কাশ্মীরের এই অংশে জঙ্গি উপদ্রব বেশি। তদন্তকারীরা জেনেছেন, স্থানীয় তরুণ এবং যুবকদের জঙ্গি খাতায় নাম লেখানোর জন্য জঙ্গিরা চাপও দিচ্ছে। যার জেরে বিপথগামী হচ্ছেন  তরুণরা। জঙ্গি দমনের পাশাপাশি বিপথগামী তরুণদেরও সমাজের মূল স্রোতে ফেরানোর চেষ্টা করছে অতন্দ্র প্রহরারত বাহিনী। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here