news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: নিজামুদ্দিনের ভুলের মাশুল এখনো গুনে চলেছে গোটা দেশ। তাতেও হুঁশ ফেরেনি ধর্মভীরু সাধারণ মানুষের। রমজানের মাসে লকডাউনকে উপেক্ষা করে জমায়েতের সঙ্গে শুরু হয়েছিল নামাজ। খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ উপস্থিত হতেই পুলিশের ওপর ক্ষেপে উঠলো উত্তেজিত জনতা। ইট-পাথর নিয়ে হামলা চালানো হল পুলিশের উপর। ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিন পুলিশকর্মী।

পুলিশ সূত্রে খবর সোমবার ভোর চারটে নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদের এক মসজিদে। করোনা জেরে এই মুহূর্তে কার্যত বেহাল অবস্থা মহারাষ্ট্রের। পরিস্থিতি সামাল দিতে সেখানে কড়াভাবে লকডাউন জারি করেছে উদ্ধব সরকার। তবে সে লকডাউন উপেক্ষা করেই সোমবার ভোর চারটে নাগাদ ঔরঙ্গাবাদ এর এক মসজিদে রমজানের নামাজ পড়তে জড়ো হন শতাধিক সংখ্যালঘু মুসলিম। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি সেখানে পৌঁছে পুলিশ বাহিনী। মানুষকে অনুরোধ করা হয় বাড়ি ফিরে যাওয়ার জন্য। তবে সে অনুরোধ মানেননি তারা। উল্টে পুলিশের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ইট-পাথর নিয়ে হামলা করা হয়। ঘটনার জেরে পাথরের আঘাতে আহত হন তিনজন পুলিশ কর্মী। এরপরই পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিশাল পুলিশবাহিনী। গ্রেপ্তার করা হয় ২৭ জনকে। আরও একাধিক অভিযুক্ত নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে পুলিশের তরফে। ঘটনার সঙ্গে একাধিক মহিলাও যুক্ত ছিলেন বলে জানানো হয়েছে।

নিজামুদ্দিনের মত ঘটনার পর কিভাবে এমন শতাধিক জামায়েত নিয়ে মানুষ ধর্ম পালনে মেতে ওঠেন তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন অনেকেই। এদিকে মহারাষ্ট্রের মত রাজ্যে এই ঘটনা আরো ভয়াবহ হয়ে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বর্তমানে এই রাজ্যে ৪ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত বলে জানা গিয়েছে। মৃত্যু হয়েছে বহু মানুষের। এহেন পরিস্থিতিতে কোনরকম জমায়েত ঘটলে পুলিশকে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

 

প্রতীকী ছবি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here