yogi
যোগী আদিত্যনাথ

মহানগর ডেস্ক: আগামী বছরই উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন। আর সেই নির্বাচনকে মাথায় রেখেই সোমবার বাজেট পেশ যোগী আদিত্যনাথের সরকারের। চলতি অর্থবর্ষের বাজেটে উত্তরপ্রদেশের জন্য পাঁচ লক্ষ কোটি টাকা বরাদ্দ করল যোগী সরকার। যার মধ্য়ে ৩০০কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে রাম মন্দির নির্মানের জন্য! এদিকে বাজেট পেশ হওয়ার পরেই বাজেটের তীব্র কটাক্ষ করেন উত্তরপ্রদেশের সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব। বাজেটের প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘খেল খতম, পয়সা হজম।’

কেন্দ্রের দেখাদেখি এদিন প্রথা ভেঙে পেপারলেস বাজেট পেশ করতে দেখা যায় উত্তরপ্রদেশের অর্থমন্ত্রী সুরেশ কুমার খান্নাকে। উত্তরপ্রদেশের সার্বিক উন্নয়ন এবং ‘আত্মনির্ভর’ উত্তরপ্রদেশ গড়ার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এদিন বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী। চলতি অর্থবর্ষের এই বাজেটে মেট্রো রেল প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ১১৭৫কোটি টাকা। কানপুর মেট্রো রেলের জন্য আলাদাভাবে বরাদ্দ করা হয়েছে ৫৯৭কোটি টাকা। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় বরাদ্দ করা হয়েছে ৭০০০কোটি টাকা। অযোধ্যায় এয়ারপোর্ট নির্মাণের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ১০১কোটি টাকা। ‘আত্মনির্ভর’ উত্তরপ্রদেশ গড়ার লক্ষ্যে গত বছরের তুলনায় ৩৭,৪১০ কোটি টাকা বেশি বরাদ্দ করা হয়েছে এই বাজেটে।

তবে এদিনের বাজেটে অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ৩০০কোটি টাকা। যা নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক। রাজ্য সরকারের বাজেটে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের জন্য বরাদ্দের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনা করেছেন বিরোধীরা। অন্যদিকে অযোধ্যায় নির্মীয়মাণ বিমানবন্দরও শ্রীরামের নামে নামাঙ্কিত করা হয়েছে বাজেটে। নয়া বিমান বন্দরের নাম রাখা হয়েছে ‘মর্যাদা পুরুষোত্তম শ্রীরাম এয়ারপোর্ট।’

বাজেট সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যানাথ বলেন, ‘রাজ্যের যুবক, মহিলা, দরিদ্র এবং কৃষকদের সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থেই এই বাজেট। আগামী এক বছরের মধ্যেই  প্রত্যেকে ঘরে পানীয় জল ও বিদ্যুৎ পৌঁছে দেবে সরকার। রাজ্যে আরও বেশি সড়ক নির্মাণের পাশাপাশি প্রত্যেক গ্রামে ডিজিটাল পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া হবে।’ যদিও এই বাজেটের ফলে সমাজের মধ্যবৃত্ত ও গরিব শ্রেণী কোনও ভাবেই উপকৃত হবেনা বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here