national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বৃহস্পতিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া আপডেট অনুযায়ী, ভারতে এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৭৩৪। এর মধ্যে ৫০৯৫ জন এখনও চিকিৎসাধীন, ৪৭২ জন সুস্থ, ১৬৬ জন প্রাণ হারিয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৩ জনের মৃত্যু হল। এর ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯৯। মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৪১২। শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের রিপোর্টে এ কথা জানানো হয়েছে।

দেশে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা মহারাষ্ট্রের। সেখানে এখনও পর্যন্ত ১৩৬৪ জনের শরীরে মিলেছে মারণ ভাইরাস। দ্বিতীয় স্থানে আছে তামিলনাড়ু। তবে দেশজুড়ে এই আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়বে কারণ আরও বেশি সংখ্যক লোকের করোনা পরীক্ষা করা হবে, এই প্রসঙ্গে বুধবার ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ জানিয়েছিল, ‘৮ এপ্রিল পর্যন্ত মোট ১,২৭,৯১৯ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫১১৪ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।’

এদিকে, ভারতের রাজধানী দিল্লিতে ২০টি করোনা ‘হটস্পট’ সিল করে দেওয়া হয়েছে। একই ভাবে উত্তরপ্রদেশের ১৫টি জেলার করোনা সংক্রামিত অঞ্চলগুলিও সিল করে দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন জানান, ১৯টি রাজ্যে ছড়িয়ে থাকা এই ১৩৩টি ‘হটস্পট’ই সংক্রমণ ছড়ানোর ভরকেন্দ্র। তাই ওই এলাকাগুলিতে লকডাউনের বিধিনিষেধে অনেক বেশি কড়াকড়ি ও নজরদারির ব্যবস্থা নিশ্চিত করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। তবে তাঁর দাবি, আর পাঁচটা দেশের তুলনায় দেশের করোনা পরিস্থিতি অনেক ভাল। তাই দেশবাসীকে অযথা আতঙ্কিত না-হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here