ডেস্ক: দেশে ধর্ষণের ঘটনার তালিকা সামনে এলে লজ্জা পাবেন সকলেই। ছোট্ট শিশু থেকে শুরু করে বছর ৯০-এর বৃদ্ধা, তালিকা থেকে বাদ যান না কেউই। ধর্ষণের ঘটনায় কে দায়ী তা নিয়ে বিস্তর বিতর্ক লেগেই থাকে। মেয়েদের পোষাক, রাতে বাড়ির বাইরে থাকা, আরও কত কি নিয়ে প্রশ্ন তোলে সমাজ। কিন্তু ধর্ষণের জন্য যে শুধুমাত্র বিকৃত মানসিকতাই দায়ি তার প্রমাণ মেলে। না হলে এই ঘটনা ঘটার নয়। কোনও মহিলা বা শিশু বা বৃদ্ধা নয়, এবার ৪ মাসের বাছুরকে ধর্ষণের ঘটনায় উত্তপ্ত হল উত্তরপ্রদেশের মিরাট!

জানা যাচ্ছে, ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের মিরাটের ভাগপাট ব্লকের তিলওয়াড়া গ্রামে। স্থানীয়দের অভিযোগ, এলাকারই এক যুবক বাছুরটিকে ধর্ষণ করেছে। বুধবার এই ঘটনার পর থেকেই অসুস্থ হয় বাছুরটি। তারপর শনিবার মৃত্যু হয় গো-শাবকের। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ধর্ষণের ফলে গো-শাবকটির শরীরের অভ্যন্তরে ভয়াবহ আঘাত লাগে, প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। যার ফলে সেটির মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনার পর গোটা এলাকায় অশান্তির আবহ। ঘটনার প্রতিবাদে এলাকায় বিক্ষোভ দেখিয়েছে বেশ কয়েকটি হিন্দুত্ববাদী সংগঠন। অবিলম্বে অভিযুক্তের শাস্তির দাবি জানাচ্ছে তারা। অভিযুক্ত যুবকের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ এবং ৪৩৯ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে গো-রক্ষা নিয়ে নানারকম পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। শুধু এই রাজ্যে নয়, দেশের বিভিন্ন রাজ্যেই গো-রক্ষার নামে একাধিক হিংসাত্মক ঘটনা সামনে এসেছে। গো-পাচারকারী সন্দেহে মারধরের ফলে মৃত্যুও হয়েছে অনেকের। এই হিন্দুত্ববাদই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি সরকারের অন্যতম বড় হাতিয়ার। এই জায়গায় দাঁড়িয়ে খোদ যোগীরাজ্যে বাছুরকে ধর্ষণের ঘটনা তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here