হাল খারাপ ইমরানের, বন্ধ হল ৪৪০ মিলিয়ন ডলার মার্কিন অর্থসাহায্য

0
557

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এ যেন ‘অভাগা যেখানে যায় সাগর শুকায়ে যায়।’ বর্তমান পরিস্থিতিতে পাকিস্তনের সঙ্গে এই কথাটা একেবারে কাঁটায় কাঁটায় মিলে যায়। একে ভারতের সঙ্গে কাশ্মীর ইস্যুতে আন্তর্জাতিক মঞ্চে কোণঠাসা, সন্ত্রাসবাদের মদতদাতা হিসাবে বিশ্ব মঞ্চে বদনামও যথেষ্ট। আর এই সবকিছুর জেরেই এবার আমেরিকা থেকে আরও বড় আর্থিক ধাক্কা খেল পাকিস্তান। সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডলান্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের পরই এক ধাক্কায় পাকিস্তানের আর্থিক অনুদান অনেকখানি কমিয়ে দিল আমেরিকা। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা না নেওয়ার জেরেই এই পদক্ষেপ বলে অনুমান করা হচ্ছে।

ইমরান খান দেশের প্রধানমন্ত্রই পদে বসার পর থেকেই অর্থনৈতিক মন্দায় বিপর্যস্ত পাক সরকার। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে অন্যান্য মিত্র দেশগুলি থেকে ধার করে দেশ চালাতে হচ্ছে ইমরান খানকে। এহেন পরিস্থিতিতে একধাক্কায় ৪৪০ মিলিয়ন ডলার আর্থিক সাহায্য কমিয়ে দেওয়া হল পাকিস্তানের। ভারতীয় মুদ্রায় যা ৩ হাজার ১০০ কোটি টাকা। এই বিপুল পরিমাণ টাকা কেটে আমেরিকা পাকিস্তানকে এখন দেবে মাত্র ৪.১ বিলিয়ন ডলার ভারতীয় মুদ্রায় যা ৩০ হাজার কোটি টাকা। অনুমান করা হচ্ছে, কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ করার পর হাফিজ সইদকে মুক্তি দেয় পাকিস্তান। ওই জঙ্গিকে গ্রেফতার ও কিছুদিনে এই মুক্তি গোটা ঘটনায় যারপরনাই অসন্তুষ্ট আমেরিকার টাকা কাটার সিদ্ধান্ত নিল পাকিস্তানকে দেওয়া অর্থ সাহায্যে।

প্রসঙ্গত, উন্নয়নশীল দেশ হিসাবে পাকিস্তানের সঙ্গে ২০১০ সালে এক চুক্তি সাক্ষর করে আমেরিকা যার নাম ছিল এনহ্যান্সমেন্ট পার্টনারশিপ এগ্রিমেন্ট। এর মাধ্যমেই আমেরিকা থেকে আর্থিক অনুদান পায় ইমরানের দেশ। তবে জঙ্গিদের তল্লাই দেওয়ার অভিযোগে সেখান থেকে টাকা কাটার সিদ্ধান্ত নিল আমেরিকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here