kolkata bengali news

Highlights

  • ৫ জইশ ই মহম্মদ জঙ্গিকে গ্রেফতার করল জম্মু কাশ্মীর পুলিশ
  • পুলিশের অনুমান ২৬ জানুয়ারি কোনও ভয়াবহ নাশকতা চালানোর জন্যই প্রস্তুত হচ্ছিল এই জঙ্গিরা
  • উদ্ধার করা হয়েছে, বোমা বাঁধা অবস্থায় থাকা বেশ কয়েকটি জ্যাকেট

মহানগর ওয়েবডেস্ক: প্রজাতন্ত্র দিবসে বড়সড় জঙ্গি হামলা যে ঘটতে পারে এমন একটা ইঙ্গিত আগেই দিয়েছিল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। সেই আশঙ্কাকে সত্যি প্রমাণিত করে এবার উপত্যকায় ৫ জইশ ই মহম্মদ জঙ্গিকে গ্রেফতার করল জম্মু কাশ্মীর পুলিশ। ধৃত ওই ৫ জঙ্গির কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রশস্ত্র ও বোমা। যার মধ্যে রয়েছে বোমা বাঁধার জ্যাকেটও। পুলিশের অনুমান ২৬ জানুয়ারি কোনও ভয়াবহ নাশকতা চালানোর জন্যই প্রস্তুত হচ্ছিল এই জঙ্গিরা।

জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর ধীরে ধীরে যখন রাশ আলগা করা হচ্ছে উপত্যকার। একে একে চালু করা হচ্ছে ইন্টারনেট পরিষেবা, ঠিক সেই মুহূর্তে এমন একটি গ্রেফতারী উদ্বেগ বাড়িয়েছে নিরাপত্তারক্ষীদের। শ্রীনগর পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, যে ৫ জইশ জঙ্গিদের এদিন গ্রেফতার করা হয়েছে তারা হল, উমর হামিদ শেখ, আইজাজ আহমেদ শেখ, ইমতিয়াজ আহমেদ চিকলা, সাহিল ফারুক গোজরি ও নাসির আহমেদ মির। প্রাথমিক ভাবে পুলিশের ধারণা এরা ২৬ জানুয়ারিতেই হামলা চালানোর ছক করছিল। তবে সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য জঙ্গিদের জেরা শুরু করেছে গোয়েন্দারা। পাশাপাশি পুলিশের তরফে আরও জানা গিয়েছে, ওই ৫ জঙ্গির কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে, বোমা বাঁধা অবস্থায় থাকা বেশ কয়েকটি জ্যাকেট। পাশাপাশি বল বেয়ারিং, ডিটোনেটর, জিলেটিন স্টিকন নাইট্রিক অ্যাসিডের মতো যন্ত্রপাতি। পুলিস-এর দাবি, এগুলি সাধারণত আত্মঘাতী হামলার কাজে ব্যবহার হয়।

উলেখ্য, এদিনই প্রকাশ্যে এসেছিল ২৬ জানুয়ারি ফিদায়েঁ হামলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে হিজবুল ও জইশ জঙ্গিরা। উরির মতোই বিদেশি জঙ্গিদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে এই হামলা চালানো হতে পারে সেনা ছাউনিতে। ইতিমধ্যেই এই হামলা চালানোর উদ্দেশে পাকিস্তানে বসে ৮ জঙ্গি বৈঠক সেরে ফেলেছে বলেও খবর এসেছিল। ইতিমধ্যেই উপত্যকায় আত্মঘাতী হামলার বিস্ফোরক সহ গ্রেফতার হল ৫ জইশ জঙ্গি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here