প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনায় বড়সড় দুর্নীতি, বঞ্চিত গ্রাহক, ঝোপে পড়ে ৫ হাজার সিলিন্ডার

0
426

মহানগর ওয়েবডেস্ক: একদিকে যখন দুর্নীতি মুক্ত ভারত গঠনের ডাক দিয়ে দেশ তথা বিশ্বজুড়ে নিজের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে মরিয়া দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র। ঠিক তখনই বিজেপি শাসিত রাজ্য, আরও ভালোভাবে বললে যোগী রাজ্যে প্রকাশ্যে এল মোদীর প্রকল্প নিয়েই বড়সড় দুর্নীতি। দেশের গরিব মায়ের চোখের জল মোছাতে যে বিশাল ঢাকঢোল পিটিয়ে উজ্জ্বলা যোজনা প্রকল্প শুরু করেন মোদী। গ্রাহকদের বঞ্চিত করে সেই প্রকল্পেরই ৫ হাজার গ্যাস সিলিন্ডার উদ্ধার হল উত্তর প্রদেশের বলরামপুর জেলার পাচপেদা এলাকাযর ঝোপ জঙ্গল থেকে। শুধু সিলিন্ডার নয় উদ্ধার হয়েছে প্রকল্পের আওতায় থাকা ভার্গব গ্যাস এজেন্সির হাজারেরও বেশি রেগুলেটরও। এই ঘটনায় ওই গ্যাস এজেন্সির মালিক সহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, উজ্জ্বলা যোজনায় যে সমস্ত মানুষ আবেদন করেছিলেন তাঁদের গ্যাস বাড়িতে না দিয়ে ঝোপে লুকিয়ে রেখেছিল ভার্গব সংস্থা। আর এই খবর জেলা শাসকের কাছে পৌছলে পুলিশ নিয়ে ওই সংস্থার অফিসে অভিযান চালানো হয়। কিন্তু এই বিপুল পরিমাণ সিলিন্ডার দেখে চক্ষু চড়কগাছ হয় প্রশাসনের। টানা দু’দিন ধরে চলে সিলিন্ডারের সংখ্যা গণনার কাজ। এরপর জানা যায় ৪ হাজার ৯১২ টি সিলিন্ডার গ্রাহককে না দিয়ে তা নিজের কাছে রেখে দুর্নীতি করছিল ওই সংস্থা। সিলিন্ডারের পাশাপাশি উদ্ধার হয় হাজার খানেক রেগুলেটরও। গোটা বিষয়টি নিয়ে ওই সংস্থার মালিককে প্রশ্ন করা হলে তিনি এর কোনও সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারেননি। গ্রাহকদের কাগজপত্র ও কেন এত গ্যাস মজুত করে রাখা হয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে সংস্থার তরফে জানানো হয়, কিছুদিন আগে দোকানে আগুন লাগে। সেই আগুনে সমস্ত কাগজপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। ঘটনার জেরে ওই সংস্থার মালিক সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন জেলা শাসক।

এই প্রসঙ্গে উত্তরপ্রদেশের ওই জেলা শাসকের দাবি, তিন চার দিন আগে সংবাদমাধ্যম সূত্রে তিনি খবর পান গ্রাহকদের না দিয়ে বিপুল পরিমাণ গ্যাস মজুত করে রাখা হয়েছিল ওই সংস্থার অফিসে। এই খবরের ভিত্তিতেই গোপন অভিযান চালানো হয় পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে। এরপরই প্রকাশ্যে আসে এই বিপুল পরিমাণ দুর্নীতি। পুলিশি হেফাজতে অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এই কাণ্ডের সঙ্গে আর কারা কারা জড়িত রয়েছে শীঘ্রই তা স্পষ্ট হয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here