ডেস্ক: কথায় আছে, ”মাছে ভাতে বাঙালি”। পৃথিবীর যে কোণায় যান না কেন, বাঙালি অথচ মৎস প্রেমী না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। ভাগাড়কাণ্ডের জেরে বাইরে থেকে কিনে সাধের চিকেন খাওয়াটা আগেই লাটে উঠেছে। কিন্তু এবার কি মাছও? শেষ পর্যন্ত বাঙালির ভালোবাসার মাছটুকুও জালি বেরোবে? আরে বেরোবে কি মশাই! পচা মাংসের পর এবার মাছের কারবারও ধরা পড়ল। আর ঘটনাস্থল? সেই বজবজ।

ভাগাড়কাণ্ডের পর জেলায় জেলায় শুরু হয়েছে চিরুনি তল্লাশি। বেশিরভাগ জায়গা থেকেই উদ্ধার হচ্ছে পচা মাংস। এতদিন নিশ্চিতমনে মৎস ভক্ষণেই মনোনিবেশ করেছিল খাদ্যপ্রেমীরা। কিন্তু বৃহস্পতিবার সকালেই বজবজের নতুন বাজার একালা থেকে উদ্ধার হল প্রায় ৭০ কেজি পচা মাছ ও মাংস। এদিন সকালে বজবজের মাছের দোকানগুলিতে হানা চালিয়ে পচা মাছ উদ্ধার হওয়ায় চোখ কপালে ওঠে পুরসভার কর্মীদের। এই ঘটনায় আটক করা হয়েছে আকবর নামের এক মাছ ব্যবসায়ীকে। জানা গিয়েছে, পচা মাংসের কাণ্ড পর্দাফাঁস হওয়ার পর থেকেই এই পচা মাছের কারবার শুরু করে ধৃত ব্যবসায়ী।

ঘটনার সূত্রপাত এদিন সকালেই। এক ক্রেতা মাছ কিনে নিয়ে যাওয়ার পর তাঁর সন্দেহ হয় যে তাঁকে পচা মাছ ধরিয়েছে ওই ব্যবসায়ী। বিষয়টি পুরসভার কানে তুললে বাজার পরিদর্শনে হাজির হয় বজবজ পুরসভার ২০ সদস্যের একটি দল। সন্দেহজনক ওই দোকানটির তল্লাশি শুরু করতেই দোকানে রাখা ফ্রিজ থেকে উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমাণ পচা মাছ। এর পরই আকবরকে পাকড়াও করে প্রশাসনের হাতে তুলে দেন পুরসভার কর্মীরা।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here