মহানগর ওয়েবডেস্ক: সোমবার রাতে গালোয়ান ভ্যালিতে চিন ও ভারতীয় সেনার সংঘর্ষে শহিদ হন ২০ জন ভারতীয় জওয়ান। সেই নিয়ে উত্তাল দেশ। এরই মাঝে এনডিটিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এক সেনা আধিকারিক জানিয়েছেন, ওই দিনের সংঘর্ষে আহত হয়েছেন মোট ৭৬ জন ভারতীয় জওয়ান। তারা বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি থাকলেও কারোরই অবস্থা আশঙ্কাজনক নয় এবং কয়েকদিনের মধ্যেই তারা ফের কাজে যোগ দেবেন।

ওই আধিকারিক জানান, ৭৬ জনের মধ্যে ১৮ জন লেহ’র হাসপাতালে রয়েছেন। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে সীমান্ত রক্ষার কাজে তারা যোগ দেবেন। বাকি সকলেই উপত্যকার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি। তারা এক সপ্তাহের মধ্যেই কাজে যোগ দেবেন।

প্রসঙ্গত, লাদাখের গালোয়ান ভ্যালিতে সোমবার রাতে হঠাৎ করেই রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে দুই দেশের সেনা। প্রাথমিক ভাবে জানা যায় ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন ভারতের এক সেনা অফিসার ও দুই জওয়ান।

কিন্তু মঙ্গলবার রাতের বেলা জানা যায়, শুধু দুই জওয়ান ও এক কর্নেল নন, চিন ও ভারতীয় সেনাবাহিনীর সংঘর্ষে ভারতীয় সেনার কমপক্ষে ২০ জন জওয়ান শহিদ হয়েছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এই খবরের স্বীকার করে নেওয়া হয়। শুধু তাই নয়, এই সংঘর্ষে চীনের ৪৩ জন সেনা মারা গিয়েছে বলেও জানা যায় সূত্র মারফত। ভারতীয় সেনার তরফেও এই খবরের সত্যতা স্বীকার করে নেওয়া হয়।

একাধিক সংবাদসংস্থা সূত্রে খবর, সংঘর্ষে বন্দুকের ব্যবহার না হলেও ভারতীয় সেনারা খালি হাতেই চিনা সেনার সম্মুখীন হন। কিন্তু চিনা ফৌজ রড, কাঁটাতার জড়ানো লাঠি দিয়ে হামলা করে। যদিও ভারতীয় জওয়ানরা খালি হাতেই ৪৩ চিনা সেনাকে ঘায়েল (মৃত ও আহত) করে। চিনের তরফে বলা হয়, ভারতীয় সেনা তাদের সীমান্তে ঢুকে পড়ে। ভারত সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। চিনের তরফে হতাহতের খবর স্বীকার করা হলেও, কোনও নির্দিষ্ট সংখ্যা প্রকাশ করা হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here