জল মিশেছে ৭৭ লক্ষ সদস্যে, ৪২ লক্ষের মোবাইলই নেই, মাত্র ৩৫ লক্ষকে স্বীকৃতি মোদী শাহের

0
353
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: লোকসভায় বিপুল জয়ের পর টিম মোদী শাহ বিজেপির বঙ্গ ব্রিগেডকে টার্গেট দিয়ে দিয়েছিলেন এই রাজ্য থেকে ১ কোটি সদস্য জোগাড় করার। এরপরই ঢাকঢোল পিটিয়ে মাঠে নেমে পড়ে দিলীপ মুকুল টিম। পাড়ায় চায়ের দোকান থেকে শুরু করে বাড়ি বাড়ি গিয়ে সদস্য গ্রহনে উঠে পড়ে লাগে বিজেপি। এরপর অল্প দিনের মধ্যেই বৃহস্পতিবার বিজেপির তরফে সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দেওয়া হয় রাজ্য এই মুহূর্তে ৭৭ লক্ষ সদস্য সংগ্রহ করে ফেলেছে বিজেপি। এরই মাঝে জানা গেল মিসড কল দিয়ে যে ৭৭ লক্ষ সদস্য বিজেপি সংগ্রহ করেছে তার মধ্যে ৪২ লক্ষেরই নেই কোনও মোবাইল। এরপরই বিজেপির সদস্যতা অভিযান নিয়ে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। অনেকেই দাবি তুলছেন জল মেশানো হয়েছে সদস্য সংখ্যায়।

এদিকে মোবাইলে মিসড কল না এলেও ফর্ম ভর্তি করে রাজ্য বিজেপির তরফে সদস্যদের নাম পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় মহলকে। যা দেখে চোখ কপালে উঠেছে কেন্দ্রের। ফলস্বরূপ সংখ্যায় কাটছাঁট করে যে নম্বরগুলি থেকে বিজেপির টোলফ্রি নম্বরে মিসডকল এসেছে সেই নম্বর গুলিকেই স্বীকৃতি দিয়েছে কেন্দ্র। সেখানে সংখ্যাটা দাঁড়িয়েছে মাত্র ৩৫ লক্ষ। যদিও রাজ্য বিজেপির তরফে কেন্দ্রকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে ৭৭ লক্ষ সদস্য তাঁরা গ্রহণ করেছে তাঁদের মধ্যে ৪২ লক্ষের মোবাইল নেই ফলে মিসড কল দিতে পারেনি তাঁরা। কিন্তু এই বিপুল সংখ্যক মানুষের মোবাইল না থাকার দাবি মানতে নারাজ টিম মোদী শাহ। যার জেরে বেশ চাপে রাজ্য গেরুয়া।

কেন্দ্রের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ওই ৪২ লক্ষ মানুষের যদি সত্যিই মোবাইল না থেকে থাকে সেক্ষেত্রে বিজেপি কর্মীদের মোবাইল থেকে অ্যাপের মাধ্যমে সদস্য করতে হবে। এবং সংশ্লিষ্ট বিজেপি কর্মীর ফোনে আসবে নতুন সদস্যের সদস্যপদ নম্বর। আর এই দায়িত্ব বর্তেছে বিজেপির আইটি সেলের কর্মীদের উপর। জানা গিয়েছে এই কাজে বেসরকারি এজেন্সি নিয়োগের আর্জি জানিয়েছিল রাজ্য কিন্তু তা খারিজ করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক দলীয় কর্মীর দাবি জল খানিকটা মিশেছে জানতাম তবে তা যে এতখানি হবে এটা আন্দাজ করতে পারিনি। আরও এক নেতার কোথায়, বাংলায় এখনও এত মানুষের কাছে মোবাইল পৌছয়নি অথচ বিজেপির ফর্ম পৌঁছে গিয়েছে এটা বিজেপির অন্ধ ভক্ত বিশ্বাস করবে না।

তবে রাজ্য বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে আমরা রীতিমতো পথে নেমে ৭৭ লক্ষ সদস্য সংগ্রহ করেছিলাম। তবে তাঁদের মধ্যে অর্ধেকের মোবাইল নেই। তাঁদের ফর্ম ফিলাপের মাধ্যমে সদস্য করা হয়েছিল। যাইহোক, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশে এবার মোবাইলহীন সদস্যদের আমরা অনলাইনে সদস্য করার ব্যবস্থা শুরু করেছি। প্রত্যেক জেলায় আমাদের সংগঠন আছে তাঁদের নতুন করে কাজ শুরুর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here