ডেস্ক: মহারাষ্ট্রের ন’টি সংশোধনাগারে এবার চালু করা হবে স্যানিটারি প্যাড ভেণ্ডিং মেশিন। এমনটাই সিদ্ধান্ত নিল মহারাষ্ট্রের রাজ্য মহিলা কমিশন। এর সুফল ভোগ করতে পারবেন প্রায় ১০২৩ জন মহিলা বন্দী। সম্প্রতি মুম্বইয়ের বাইকুল্লা সংশোধনাগারে এক মহিলা বন্দী বিষক্রিয়ার কারণে মারা যান। তার মৃত্যুর পরেই একটি বিশেষ তদন্তকারী দল(SIT) গঠন করা হয়। SIT-র সদস্যদের তরফে জানানো হয়েছে, মহারাষ্ট্রের সংশোধনাগারে বন্দীদের খাবার, পুষ্টি ও নিরাপত্তার ব্যাপরে যাতে বিশেষ নজর রাখা হয় তার ব্যবস্থা করতে হবে।

একটি পাইলট প্রজেক্ট হিসাবে মহারাষ্ট্রের মহিলা কমিশন সংশোধনাগারে ভেণ্ডিং মেশিনের পাশাপাশি ব্যবহৃত প্যাডগুলকে যত্রতত্র না ফেলে নির্মূলকরণের জন্য বিশেষ যন্ত্রাদির ব্যবস্থাও করা হবে। যেখানে এগুলোকে সহজে ব্যবহারের পর পুড়িয়ে ফেলতে পারবেন বন্দীরা। এরাওয়াড়া, থানে, কোলাপুর, ঔরঙ্গাবাদ, নাগপুর, আমরাবতি, কল্যান, বাইকুল্লা ও চন্দ্রপুরা মোট ন’টি এলাকার সংশোধনাগারে পাওয়া যাবে এই বিশেষ সুবিধা।

মহারাষ্ট্রের রাজ্য মহিলা কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, স্যানিটারি প্যাড ভেণ্ডিং মেশিন বসানোর সমস্ত খরচভার বহন করবে সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ। এর পাশাপাশি প্যাডের নূন্যতম খরচ নেওয়া হবে কিনা তা এখনও ঠিক করা হয়নি, তা বিবেচনা করে দেখবেন সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ। প্রত্যেকটি মেশিনে থাকবে ৫০ টি করে প্যাড থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here