ডেস্ক: নিজের ছেলেকে অমানবিকভাবে খুন করতে একবারও হাত কাঁপল না বছর ৬৫-র এক বৃদ্ধর। পুত্রবধুর সঙ্গে শ্বশুরের অবৈধ সম্পর্কের জেরে খুন হতে হল ছেলেকে। পৈশাচিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদেএই ঘটনায় ওই বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, পুত্রবধূর সঙ্গে অভিযুক্তের অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠার আঁচ পেয়ে যায় ছেলে। এই নিয়ে তাদের মধ্যে তুমুল অশান্তি শুরু হয়। এই বিষয়ে ঘোর আপত্তি জানায় সে। সম্ভাব্য এই কারণেই খুন হতে হয় ছেলেকে। ছেলের খুনের পর পুলিশকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করা ওই বৃদ্ধ। নিজে গিয়েই থানায় ছেলের নিখোঁজ হওয়ার অভিযোগ দায়ের করে। কিন্তু কল লিস্ট খতিয়ে দেখে পুলিশ সত্যিটা জানতে পারে। কল লিস্ট পরীক্ষায় জানা যায়, গত ১৪ জুলাই রাতে ক্ষেতে ছিলেন নিহত। পুলিশ জানায়, বাবা এবং ছেলে দুজনেই রাতে মাঠে থাকত। সেদিনও তাঁরা মাঠেই ছিলেন।

এরপরই পুলিশ ওই বৃদ্ধকে হেফাজতে নিয়ে জানতে পারে, সে নিজেই তাঁর ছেলেকে খুন করেছে। তারপর তার দেহ কুড়ুল দিয়ে টুকরো টুকরো করে মাটিতে পুঁতে দেয়। ছেলের দেহ যেখানে পোঁতা হয়েছিল, সেই জায়গায় পুলিশকে নিয়েও যায়। তারপরই পুলিশ ওই পচা গলা দেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। এই ঘটনায় নিহতের স্ত্রী কিছু জানে কিনা তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।