kolkata news
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধি মিশন ২০২৪। সেই লক্ষ্যেই সংগঠন ঢেলে সাজাতে চাইছে তৃণমূলও। ঘাসফুল শিবির সূত্রে খবর, সংগঠনের নয়া ছাঁদে গুরুত্ব দেওয়া হবে তরুণ তুর্কিদের। স্বচ্ছ ভাবমূর্তির তরুণরাই এবার নেতৃত্ব দেবেন দলকে।

ads

এতদিন তরুণদের ওপর খুব বেশি ভরসা করতে পারেননি তৃণমূল নেতৃত্ব। সেজন্য এক ব্যক্তির ঘাড়েই থাকত বিস্তর দায়িত্ব। এবার তৃণমূলে চালু হয়েছে এক ব্যক্তি, এক পদ নীতি। স্বাভাবিকভাবেই খালি হবে জায়গা। সেখানেই বসানো হবে তরুণ তুর্কিদের। দিন কয়েক আগে ইলেকশন স্পেশালিস্ট প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে বৈঠকে বসেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, সেখানে প্রশান্তই প্রথম মমতাকে প্রস্তাব দেন সংগঠনে আরও বেশি করে তরুণদের ঠাঁই দিতে। প্রশান্তের টনিকে মোক্ষলাভ হয়েছে বিধানসভা নির্বাচনে। তাই তাঁর কথাই এখন দলে ‘বেদবাক্য’ বলে তৃণমূলের একটি সূত্রের দাবি। তাছাড়া প্রশান্তের সঙ্গে সহমত পোষণ করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও। এর পরেই ঠিক হয় সংগঠনে আনা হবে কম বয়সীদের। দু তিন দিনের মধ্যেই তাঁদের নাম ঘোষণা করা হতে পারে। যাঁরা দলের যুব সংগঠনে রয়েছেন, প্রমোশনের ক্ষেত্রে তাঁদেরই অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলেও দল সূত্রে খবর।

২০২৪ এ লোকসভা নির্বাচন। তার আগে সংগঠন ঢেলে সাজাতে চাইছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। মূলত স্বচ্ছ্ব ভাবমূর্তির কম বয়সীদেরই আনা হবে নেতৃত্বে। রাজ্যের যেসব মন্ত্রী জেলা সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন, এক ব্যক্তি এক পদ নীতি চালু হওয়ায় সরে যেতে হবে তাঁদের। সেই শূন্যস্থানই ভরাট করা হবে এক ঝাঁক তরুণ তুর্কিকে দিয়ে।      

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here