নিজস্ব প্রতিবেদন, বালুরঘাট: দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বংশীহারি থানার দৌলতপুরে বুধবার সকালে মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল এক সিভিক পুলিশের৷ মৃত সিভিক পুলিশের নাম মোক্তার হোসেন (২৭)৷ এই যুবকের বাড়ি কুরশাডাঙ্গা এলাকায়৷ প্রতিদিনের মত এদিনও মোক্তার বাড়ি থেকে বেরিয়ে প্রাইভেট টিউশন পড়াতে যাবে বলে রওনা দেন৷ বুনিয়াদপুর মালদা রাজ্য সড়ক দিয়ে মেহেন্দি পাড়ার দিকে বাইক নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি৷ ঠিক সেই সময় উল্টোদিক থেকে আশা মাল বোঝাই একটি লরির সঙ্গে মোক্তারের বাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়৷ মোটর বাইক সমেত মোক্তারকে একেবারে পিষে দেয় ট্রাকটি৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সিভিক পুলিশ মোক্তারের৷

ওই অবস্থায় ট্রাক ফেলে চম্পট দেয় চালক এবং খালাসি৷ এদিন সকাল থেকে বৃষ্টি হওয়ার জন্য ওই এলাকায় রাস্তায় লোকজন অনেকটাই কম ছিল৷ বৃষ্টি কমার পরে এলাকার লোকজন রাস্তায় বেরিয়ে দেখে এই মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ওই সিভিক পুলিশের৷ বৃষ্টি না হলে এবং লোকজন রাস্তায় বেশি থাকলে যে গতিতে এবং ভারসাম্যহীনভাবে ট্রাকটি আসছিল, তাতে আরও বহু মানুষের প্রাণহানি ঘটতে পারত বলে মনে করছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা৷ ,

স্থানীয়রা দ্রুততার সঙ্গে বংশীহারি থানায় এবং হরিরামপুর থানায় খবর দেন৷ জানা গিয়েছে, এই সিভিক পুলিশ হরিরামপুর থানায় কর্মরত ছিলেন৷ দুই থানার পুলিশই ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া হয় বনশিহারি থানায়৷ এরপর ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয় বালুরঘাট জেলা হাসপাতালে। ঘাতক গাড়িটিকেও বাজেয়াপ্ত করা হয়৷ ঘটনার জন্য ওই এলাকার ৫১২ নং জাতীয় সড়ক যানজট তৈরি হয়৷ বেশ কয়েকঘন্টা যান চলাচল বন্ধ ছিল৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here