ডেস্ক: এক ছেলেধরাকে কেন্দ্র করে ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়ালও হাবরা স্টেশন চত্বরে। অভিযুক্ত ব্যক্তিটির নাম মহম্মদ জাভেদ। এক শিশুকন্যাকে অপহরণ করে তাকে দিয়ে ওই স্টেশন চত্বরে ভিক্ষা করাচ্ছিল বলে অভিযোগ। পুলিশি তৎপরতায় শিশুটিকে তাঁর পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সূত্রের খবর, শিশুটির বাড়ি হাবরা লাগোয়া বিড়ার এলাকায়। কিছুদিন আগে শিশুটি তাঁর মায়ের সঙ্গে বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিখোঁজ হয়ে যায়। এর পরই অভিযুক্ত জাভেদ শিশুটিকে কোনভাবে দেখতে পায় এবং তাকে সঙ্গে করে হাবরা স্টেশনে নিয়ে আসে। সেখানেই তাকে দিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি করাতে শুরু সে। কিন্তু ভিনভাষী এরকম ২ জনকে দেখে স্থানীয়দের মনে সন্দেহ হয়। তখনই তারা জাভেদকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন। স্থানীয়রা জানিয়েছেন যে, দুজনেরই ভাষা আলাদা হওয়ায় ওই শিশুটির সঙ্গে জাভেদের কী সম্পর্ক তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দেয়। এর পরই জিজ্ঞাসাবাদ করার সিদ্ধান্ত নেয় তাঁরা। জিজ্ঞাসাবাদে শিশুটিকে নিজের আত্মীয় বলে দাবি করে জাভেদ। জানা যায় যে, ওই ব্যক্তি তো বাংলাই বুঝতে পারেন না। এমনকি শিশুটিও হিন্দি জানে না। তাছাড়া শিশুটির নামও বলতে পারেননি ওই ব্যক্তি।

এরপরেই স্থানীয়রা ওই ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। হাবরা থানা থেকে পুলিসকর্মীরা এসে আটক করেন অভিযুক্তকে। উদ্ধার করা হয় শিশুকন্যাকে। তাকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিয়েছে পুলিশ। সাধারণত এই ভাবে শিশুকে দিয়ে ভিক্ষা করানোর ঘটনা বড় রেল স্টেশনগুলিতে প্রায়ই ঘটে থাকতে দেখা যায়। কিন্তু হাবরার মতো স্টেশনে এরকম ঘটনায় অবাক হয়েছে অনেকেই।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here