ডেস্ক: ফের এক গৃহবধূর রহস্যমৃত্যুকে ঘিরে একবালপুর এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়াল। মৃতের নাম সিরাট পরভীন(২৮)। শুক্রবার রাতে শ্বশুরবাড়ি থেকে তাঁর নিথর দেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃতার পরিবার সূত্রে জানা যায়, ৯ বছর আগে সিরাটের সঙ্গে একবালপুরের বাসিন্দা শাহাজাদার বিয়ে হয়। দম্পতির দুটি সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন দাবিদাওয়া নিয়ে সিরাটের ওপর অত্যাচার করা হত বলে অভিযোগ। সেই সঙ্গে চলত পাশবিক শারীরিক নির্যাতনও। স্বামীর সঙ্গে অন্য এক মহিলার বিবাহ- বহির্ভূত সম্পরকের কথা পরভীন জানতে পেরে যায়। সেই নিয়ে তাদের মধ্যে তুমুল অশান্তি হয়। এরপর থেকেই তাদের সম্পর্ক আরও খারাপ হতে থাকে। মৃতার বাবা আবদুল হাসানের অভিযোগ, বিভিন্ন দাবিদাওয়া এবং স্বামীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা জানতে পারায় পারভীনকে খুন হতে হয়েছে। তাঁরা বলেন, শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে তাঁদের মেয়েকে। একবালপুর থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায় করেছে পারভীনের পরিবার। আটক করা হয়েছে মৃতার স্বামীকে। যদিও আত্মহত্যা বলে প্রাথমিক অনুমান পুলিশের।

দু দিন আগে, মানিকতলায় ফুলকুমারী নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। তাকেও পণের জন্য চাপ দিতে থাকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। সেখানেও ওই গৃহবধূর স্বামীর বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল বলে জানিয়েছিলেন মৃতের পরিবার। তারপর থেকে ওই গৃহবধূর ওপর অত্যাচারের মাত্রা আরও বেড়ে যায়। তার জেরেই মৃত্যু হয় বলে জানা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here