bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সদ্য জন্মানোর পর অশক্ত পায়ে সর্বশক্তি দিয়ে তখন উঠে দাড়াতে ব্যস্ত ছাগল ছানাটি। খবর ততক্ষণে রটে গিয়েছে গোটা গ্রামে। তিল ধারণের জায়গা নেই চন্দনা সুরের বাড়ীতে। ছোট্ট ছাগলছানাকে তাক করে তখন মুহুর্মুহু ঝলসে উঠছে মোবাইল ক্যামেরার ফ্ল্যাশ। আর হবে নাই বা কেন? অদ্ভুদ দর্শন এমন ছাগলছানা এ গ্রামে বাপ ঠাকুরদার কালেও কেউ দেখেননি যে। থ্যাবড়া মুখে সুন্দর দর্শন ছাগল ছানার কপালে বসানো রয়েছে মাত্র একটা চোখ। অনেকটা ঠিক উপকথার চক্ষু চড়কগাছে মতো। বুধবার অদ্ভুত এমন ছাগলছানাকে ঘিরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়াল বর্ধমান শহরের কাঞ্চননগরে।

জানা গিয়েছে, বুধবার বর্ধমান শহরের কাঞ্চননগরের ৩৫৫ নং এলাকায় চন্দনা সুরের বাড়িতে জন্ম নেয় এক অদ্ভুত দর্শন ছাগল ছানা। সাদার উপর খয়েরী ছোপের সুন্দর এই ছাগল ছানার বিশেষত্ব কিন্তু তার চোখ। অন্যান্য ছাগলের যেখানে দুটি করে চোখ থাকে সেখানে অদ্ভুত ভাবে এই ছাগলের মাত্র একটি চোখ। তাও আবার কপাল জুড়ে। এহেন ঘটনা লোকমুখে ছড়িয়ে পড়তে বেশি একটা সময় নেয়নি। মুহূর্তের মধ্যে চন্দনা সুরের বাড়িতে রীতিমতো ভিড় জমে যায় পাড়া প্রতিবেশীদের। উৎসুক জনতা মুখিয়ে ওঠে ছাগলটির ছবি তুলতে। সেই ছবিই এখন ভাইরাল হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে শুধু চোখ নয়, ছাগলটির মুখও অদ্ভুত দর্শন। দেখে মনে হবে নাকের কাছে কোনও হাড়ই নেই ছাগলটির।

এদিকে ছাগলটির যে জন্মসুত্রেই কিছু একটা সমস্যা রয়েছে তা বেশ বুঝেছেন ওই ছাগ শিশুর মালিক চন্দনা সুর। আর সেই কারণেই সংবাদমাধ্যমের কাছে তিনি বলেন, মাতৃ গর্ভে থাকাকালীনই কিছু একটা সমস্যার জন্য হয়ত এমন অদ্ভুত দেখতে হয়েছে ছাগলটি। তবে এই অদ্ভুত চেহারার জন্য ছাগলটির শারীরিক কোনও সমস্যা আছে কিনা জানার জন্য বাচ্চাটিকে নিয়ে স্থানীয় পশু চিকিত্সালয়ে নিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন চন্দনাদেবী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here