নিজস্ব প্রতিবেদক, বর্ধমান: প্রতিবেশীর বাড়িতে জন্মদিনের নিমন্ত্রণ খেতে গিয়ে চুরির অপবাদে আত্মঘাতী প্রৌঢ়। প্রতিবেশীর ৩০ হাজার টাকা চুরির অপবাদে অপমানে আত্মঘাতী হলেন দেওয়ান দিঘি থানার পিলখুড়ি গ্রামের বাসিন্দা বাপন দাস। মৃতের পরিবারের তরফে জানা গিয়েছে, বুধবার লক্ষ্মীপুজোর দিন গ্রামের এক প্রতিবেশীর বাড়িতে অন্নপ্রাশনের নিমন্ত্রণ ছিল বাপন দাসের। তিনি যথারীতি নেমন্ত্রণ রক্ষা করতে তাঁদের বাড়িও যান। এরপর শনিবার সকালে ওই প্রতিবেশী বাপন দাসকে তাঁর বাড়িতে ডেকে পাঠিয়ে অভিযোগ করেন, তাঁর বাড়ি থেকে ৩০ হাজার টাকা চুরি গেছে। এই ঘটনায় তিনি বাপন দাসকে চোর অপবাদ দেন। এরপর বাপন দাস বাড়ি চলে আসেন। কিন্তু শনিবার বিকেলে ফের ওই প্রতিবেশী পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে বাপন দাসের বাড়িতে হাজির হয়ে তাঁকে চুরির টাকা ফেরত দিতে বলেন।

এমনকি বাপন দাসকে রীতিমত চোর অপবাদ দিয়ে মারধরও করা হয়। এরপর প্রতিবেশীরা চলে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর বাপন দাসও বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। কিন্তু রাতেও তিনি বাড়ি ফেরেননি। রবিবার সকালে গ্রামের নতুনপুকুর পাড়ে আমগাছ থেকে বাপন দাসের ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান ওই পুকুরের মাছচাষী মুক্ত দাস। তিনিই প্রথমে গ্রামবাসীদের খবর দেন। পরে দেওয়ানদীঘি থানার পুলিশ গিয়ে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে । পেশায় ক্ষেতমজুর মৃত বাপনের স্ত্রী ছাড়াও এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। এই ঘটনায় পরিবারের লোকজন বাপন দাসের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা মানতে রাজী হননি। তাঁরা জানিয়েছেন, ওই প্রতিবেশী গ্রামের অর্থশালী এবং প্রভাবশালী ব্যাক্তি বলে পরিচিত। মিথ্যা অপবাদ দেওয়া হয়েছে বাপন দাসকে। তার জেরেই অপমানে আত্মঘাতী হয়েছেন বাপন দাস। এ ব্যাপারে মৃতের মামা পরাণ দাস জানিয়েছেন, তাঁরা দেওয়ানদিঘী থানায় ওই প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here