javed-sadhi

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ভোটপর্ব যত এগোচ্ছে, ততই ভোপালের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরকে নিয়ে বিতর্ক বাড়ছে। কখনও সাধ্বী প্রজ্ঞা বিতর্কিত মন্তব্য করছেন তো কখনও তাঁর সমালোচনায় মুখর হচ্ছেন অন্যান্যরা। এবার সাধ্বী প্রজ্ঞার সন্ন্যাস-ধর্ম নিয়ে তোপ দাগলেন বিশিষ্ট কবি, সুরকার ও গীতিকার জাভেদ আখতার। ভোপালে এক সাংবাদিক সম্মেলনে যোগ দিয়ে তিনি বলেন, ‘সাধ্বী প্রজ্ঞা সন্ন্যাসিনীর মতো পোশাক পড়েন বলে তিনি কোনো সন্ত বা সন্ন্যাসিনী নন। ওঁনার বাইরের রূপ দেখে চেনার চেষ্টা করবেন না।’ মহাভারতের খল চরিত্র রাবণের সঙ্গেও তাঁর তুলনা টেনেছেন জাভেদ। তিনি বলেন, ‘কাউকে সন্তের মতো দেখতে হলেই তিনি সন্ত হয়ে যান না। রাবণ যখন সীতাকে অপহরণ করেছিল, তখন সেও সন্তের বেশেই গিয়েছিল।’

ভোপালে বিজেপির অনেক ভালো, শিক্ষিত নেতানেত্রী থাকা সত্ত্বেও সাধ্বী প্রজ্ঞাকে প্রার্থীপদ দেওয়া নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ। তাঁর কথায়, ‘ধর্মীয় মেরুকরণে বিশ্বাসী, শিক্ষাহীন মানুষদের কেন্দ্রেই প্রজ্ঞাকে প্রার্থী করা উচিত ছিল।’ ধর্মকে কখনোই রাজনীতির মধ্যে টেনে আনা উচিত নয় দাবি জানিয়ে জাভেদ আখতারের পরামর্শ, ‘ধর্মকে রাজনীতির মধ্যে জড়িয়ে ফেললে গণতন্ত্র শেষ হয়ে যায়।’ এপ্রসঙ্গে লাতিন আমেরিকা, আরবের দেশের উদাহরণও তুলে ধরেছেন তিনি।

এদিন জাভেদ আখতার প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী থেকে শুরু করে বর্তমানে অরুণ জেটলি, সুষমা স্বরাজের মতো বিজেপি নেতানেত্রীদের প্রশংসা করলেও নরেন্দ্র মোদী এবং অমিশ শাহকে নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। আবার কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকেও প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী ভাবতে নারাজ তিনি। বর্ষীয়ান এই সাহিত্যিকের মতে, ‘এখনও পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী হওয়ার মতো কোনো কাজ করেননি রাহুল।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here