news international bengali

Highlights

  • প্রমাণ করতে চেয়েছিলেন, পৃথিবী বেসবল ব্যাটের মতো লম্বাটে
  • নিজে বানিয়েছিলেন বাষ্পচালিত রকেট
  • উড়েছিলেন প্রায় ১,৫০০ কিলোমিটার। তবে এদিনই শেষ। ঢলে পড়লেন মৃত্যুর কোলে

মহানগর ওয়েবডেস্ক: তিনি মহাকাশচারী। তবে আর পাঁচজন মহাকাশচারীর মত সাধারণ নন। প্রমাণ করতে চেয়েছিলেন, পৃথিবী গোল নয় বরং সমতল। বেসবল ব্যটের মত দেখতে। তবে লম্বাটে। আর তা প্রমাণ করতে গিয়েই নিজের বানানো রকেটে চড়ে বসেন। সেই রকেট ক্র্যাশ করেই মৃত্যু হয় তাঁর। মহাকাশচারী স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের সামনে প্রমাণ করতে চেয়েছিলেন পৃথিবী আদৌ গোল নয়। বেসবল ব্যাটের মতো প্রমাণ করতে প্রায় ১,৫০০ মিটার (প্রায় এক মাইল) পর্যন্ত উড়েছিলেন নিজের বানানো রকেটে।

সায়েন্স চ্যানেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই মহাকাশচারী ও শখের স্ট্যান্টম্যান ক্যালিফোর্নিয়ায় নিজের বানানো রকেটে চড়ে প্রমাণ করতে চেয়েছিলেন পৃথিবী সমতল। কিন্তু দুর্ঘটনাবশত তখনই মৃত্যু হয় তাঁর। সেই দৃশ্য ক্যামেরায় ধরা আছে বলেও দাবি করে সায়েন্স চ্যানেল। তিনি ম্যাড মাইক নামেই পরিচিত ছিলেন।

”মাইকেল হিউজ ‘ম্যাড মাইক’ নিজের বাড়িতে তৈরি রকেটে করে ওড়ার চেষ্টা করার সময় মর্মান্তিকভাবে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন, তাঁর পরিবার ও বন্ধুদের জন্য মর্মাহত” বলে ট্যুইট করে শোক জ্ঞাপন করেছে ওই চ্যানেল।

স্ট্যান্টম্যান হিউজেস (৬৪) ক্যালিফোর্নিয়ার বারস্টো অঞ্চলে নিজের বাড়ির সামনেই বাষ্পচালিত রকেটে ওড়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছিলেন। একাধিক ব্র্যান্ড স্পনসর করেছিল তাঁর এই গবেষণার জন্য। গবেষকের মুখপাত্র বলেছেন, পৃথিবী সমতল তা আসলে বলা হয়েছিল এই রকেট উদ্বোধনের প্রচার করার জন্যই। তিনি আরও বলেন, এই বিষয়ে সরকারি কোনও গোপন গবেষণা চলছিল। পৃথিবী সমতল বলে বিজ্ঞানী নিজেও বিশ্বাস করতেন না দাবি করে তিনি বলেন, এই নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো ঠিক নয়। আসলে এদিনের অনুষ্ঠান ছিল স্ট্যান্টের মাধ্যমে জনসংযোগ করা।

মরুভূমিতে রকেট চালানোর এই দৃশ্য সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল। তাতে দেখা যায়, কয়েক মুহুর্তের মধ্যেই লস অ্যাঞ্জেলসের কাছে রকেটটি ধংস হয়ে পড়ছে। আরও দেখা যায়, সেখান থেকে একটি প্যারাশুট ছিঁড়ে পড়ছে।

সায়েন্স চ্যানেলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই রকেট যাত্রার প্রথম অভিযানের স্বাক্ষী হতেই চ্যানেল উপস্থিত ছিল। এবং ‘হোমমেড অ্যাস্ট্রোনেটস’ নামে নতুন সিরিজ শুরু করার কথা ভাবা হয়েছিল।

রকেট চালানোর আগে লাল-কালো রঙের স্যুট পরে রকেটের সামনে দাঁড়িয়ে হিউজ তাঁর আবিষ্কারের বিষয়ে বক্তব্যও রেখেছিলেন। বলেছিলেন, এই অভিযান মানুষদের অনুপ্রাণিত করবে। সকলেই নিজেদের সাধারণ জীবনে অসাধারণ কিছু করতে পারে।তবে তা আর সফল হলো না। আকাশ পথেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন গবেষক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here