ডেস্ক: উত্তরাখণ্ডের পর এবার যোগী রাজ্য উত্তর প্রদেশ। হিন্দু মহিলার সঙ্গে কথা বলার অভিযোগে ২৪ বছর এক মুসলিম যুবককে ব্যাপক মারধরের অভিযোগ স্বঘোষিত ধর্মরক্ষকদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে, যোগীরাজ্য উত্তরপ্রদেশের কানপুর শহরে। শুধু তাই নয় ব্যাপক মারধরের পর, সেই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়া হল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ঘটনার জেরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ওই এলাকায়।

সূত্রের খবর, স্থানীয় মুসলিম সম্প্রদায়ের ওই যুবক নিকটবর্তী রেল স্টেশনে গিয়েছিলেন এক হিন্দু মহিলার সঙ্গে দেখা করতে। তখনই তাঁর পিছু নেয় কিছু হিন্দু ধর্মোন্মাদ। ভিন্ন সম্প্রদায়ের মহিলার সঙ্গে কথা বলা শুরু করলেই ওই যুবককে মারধোর করতে শুরু করে অভিযুক্তরা। ২ মিনিটের সেই ভিডিওর কথোপকথনে শোনা যায়, অভিযুক্ত ওই যুবকরা তাঁকে জিজ্ঞাসা করছে ওই মেয়েটির সঙ্গে তাঁর কিসের সম্পর্ক। তার যুবকটি তাদের বলে গত ৩ বছর ধরে একে অপরকে চেনে তাঁরা। এরপর তাকে বলা হয়, ‘তোমার জীবন যদি আমি শেষ করে দিতে না পেরেছি তবে আমি আমার নাম বদলে দেব।’ এরপর ওই জনবহুল এলাকা থেকে তাকে অন্য কোথাও নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করতে থাকে বাকিরা।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার ঠিক একইরকম ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছিল উত্তরাখণ্ডেও। এক ভিনধর্মের মহিলার সঙ্গে কথা বলার অভিযোগে উত্তরাখণ্ডের রামনগরে স্বঘোষিত ধর্ম রক্ষকদের হামলার মুখে পড়ে এক সংখ্যালঘু যুবক। কোনও মতে তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করেন এক শিখ পুলিশ অফিসার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here