ডেস্ক: উপনির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই ২০১৯-এ উজ্বল সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছে দেশের আঞ্চলিক শক্তিগুলি। তেমনই সুর বদলও দেখা গিয়েছে একাধিক রাজনৈতিক দলের। একদিকে গতকাল জেডিএস যেমন ২০১৯ অবধি কংগ্রেসের সঙ্গে জোট নিশ্চিত করেছে। অন্যদিকে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেরজরিওয়ালও নতুন সুরে কথা বলা শুরু করেছেন। বিজেপি ও কংগ্রেস উভয় দল বিরোধী কেজরির কংগ্রেসের প্রতি আচমকা নমনীয় মনোভাব অনেক প্রশ্নই তুলে দিচ্ছে।

একদা কংগ্রেসের সরকারের তুলোধোনা করা আম আদমি পার্টির কংগ্রেস সখ্যতা আচমকাই যেন আলোকিত হয়ে উঠেছে। একদিকে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল যেমন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের প্রকাশ্যেই প্রশংসা করছেন। অন্যদিকে, আরেক আপ নেতা দিলীপ পাণ্ডে কংগ্রেসের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার কথা সংবাদ মাধ্যমের সামনেই স্বীকার করে নিচ্ছেন। ফলে হাওয়া যেভাবে বইছে, ২০১৯-এ বিজেপিকে আঘাত করতে আপ যদি কংগ্রেসের হাত ধরে, তবে অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না।

উপনির্বাচনের ফলের পর একটা বিষয় দিনের আলোর মতই সাফ হয়ে গিয়েছে, একা কারোর পক্ষে হারানো সম্ভব নয় বিজেপিকে। তাই মিলেমিশে থাকলেও লক্ষ্যভেদ হবে। সেই কারণেই কংগ্রেসের হাত ধরে আসন বণ্টন প্রসঙ্গেও দুই দলের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে বলে খবর। একদিকে কংগ্রেস কমপক্ষে ৩টি আসনে নিজেদের প্রার্থী দিতে চাইছে। কিন্তু আপ ১টি আসনের বেশি ছাড়তে ইচ্ছুক নয় কংগ্রেসকে। আপাতত দুই পার্টির মধ্যে আপাতত এই আসন বণ্টন নিয়েই চলছে দড়ি টানাটানি খেলা।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here