kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: আবারও আক্রান্ত ফুরফুরার পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী। অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে। এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। জানা গিয়েছে, গতকাল রাতে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ের বোদরা অঞ্চলে আব্বাস সিদ্দিকীর অনুগামীদের ওপর আক্রমণ চালায় তৃণমূলে আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনার পর আজ সকালে আক্রান্ত অনুগামীদের দেখতে আসেন ফুরফরা শরিফের পীরজাদা আহালে সুন্নতুল জামাতের কর্ণধার আব্বাস সিদ্দিকী। ওই এলাকার উদ্দেশে রওনা দিতেই রাস্তায় তাঁর গাড়ির ওপর ইট-পাটকেল ছুড়ে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। ওই দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হন পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী স্বয়ং।

kolkata news

এই ঘটনার প্রতিবাদে আজ ভাঙড়ের ঘটকপুকুর ও বাসন্তী হাইওয়ে অবরোধ করে তাঁর অনুগামীরা।  তাদের এখন একটাই দাবি, যারা এই বর্বরোচিত আক্রমণ চালিয়েছে তাদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে। এই ঘটনায় এলাকা জুড়ে উত্তেজনার পারদ চড়ছে। রাজনৈতিক মহলের অভিমত, বিধানসভা ভোটের আগে ধীরে ধীরে পায়ের নীচে জমি হারাচ্ছে তৃণমূল। তাই এই হামলা। মাস খানেক আগে আব্বাস সিদ্দিকীর এক অনুগামী আক্রান্ত হতেই তার সঙ্গে তীব্র বাদানুবাদ হয় তৃণমূল যুব নেতা সওকত মোল্লার। সেই ঘটনার পর আবার আজ এই ঘটনা ঘটল।

অন্যদিকে,আব্বাস সিদ্দিকী আক্রান্ত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই উত্তর চব্বিশ পরগনাতেও শুরু বিক্ষোভ অবস্থান। বারাসতের খিলকাপুরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করা হয়। উত্তর চব্বিশ পরগনার বিভিন্ন স্থানে পীরজাদার সংগঠন আহালে সুন্নতে জামাতের সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। বামনগাছি, কদম্বগাছি সর্বত্র বিক্ষোভ অবস্থান হলেও তীব্রতা সবচেয়ে বেশি ছিল দত্তপুকুর থানার খিলকাপুরে। বারাসাত থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে খিলকাপুরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে আব্বাস সিদ্দিকীর অনুগামীরা। দুপুর দুটো থেকে শুরু করেন অবস্থান বিক্ষোভ। খিলকাপুরে অবস্থান স্থলে দাঁড়িয়ে আহালে সুন্নাতুল জামাতের স্থানীয় নেতা শাহজাহান আলি জানান, শওকত মোল্লার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়া পর্যন্ত চলবে অবরোধ। দুপুর সাড়ে তিনটের সময়ও অবরোধ ওঠেনি। ঘটনাস্থলে আছে বিরাট পুলিশ বাহিনী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here