কর্মবিরতির জেরে কোনও রোগীর মৃত্যু হলে দায় কার? এনআরএস প্রসঙ্গে প্রশ্ন অভিষেকের

0
184
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এনআরএস হাসপাতালের ঘটনার জেরে এখন গোটা রাজ্য উত্তাল। রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে জুনিয়র ডাক্তারদের ওপর আক্রমণ, এবং তার জেরে চিকিৎসা পরিষেবা বন্ধ, সব মিলিয়ে অথৈজলে পড়েছেন রোগীরা এবং তাদের পরিবার। এই ইস্যুকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই বিজেপি-তৃণমূল সংঘাতও শুরু হয়ে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতেই ডাক্তারদের কর্মবিরতি নিয়ে মুখ খুললেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে প্রশ্ন তোলেন ‘বিপদ হলে কে দায় নেবে?’

তৃণমূল সাংসদ বলেন,

‘এনআরএস কাণ্ডে ইতিমধ্যেই প্রশাসন ব্যবস্থা নিয়েছে। ৫ জনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদেরকে ধিক্কার জানাই। কিন্তু এইভাবে কর্মবিরতি করে সাধারণ মানুষের অসুবিধা বাড়ছে। কর্মবিরতির ফলে কারও মৃত্যু হলে তাঁদের দায় কার?’

একইসঙ্গে তিনি বলেন, যারা এই মূহুর্তে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তাদের দিকে নজর দেওয়া হোক এবং তাদের পর্যাপ্ত চিকিৎসা করা হোক। প্রসঙ্গত, এনআরএস কাণ্ডে ধৃত ৫ জনকে আজ ১৯ তারিখ পর্যন্ত পুলিসি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, সোমবার রাতে বিবার ট্যাঙরার বিবি বাগানের বাসিন্দা মহম্মদ সাহিদ নামে এক ব্যক্তির এনআরএস হাসপাতালে মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর পরেই ক্ষোভ ফেটে পড়ে পরিবার, অভিযোগ করা হয়, পর্যাপ্ত চিকিৎসাই হয়নি তাদের রোগীর। যার জেরেই এই মৃত্যু ঘটেছে। এরপর হাসপাতালের জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায় রোগীর পরিবারের। ঘটনায় পরিবহ মুখোপাধ্যায় নামে এক জুনিয়র ডাক্তার গুরুতর আহত হন, ব্যাপক মারের জেরে করোটির সামনের ডানদিকে হাড় ভাঙে তাঁর। ঘটনার পর থেকেই মঙ্গলবার কর্মবিরতির ডাক দেন চিকিৎসকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here