kolkata bengali news

ডেস্ক: কলকাতা বিমানবন্দরে কর্মরত কাস্টমস আধিকারিকদের কাজে বাধা দানের অভিযোগ সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কাস্টমস-এর আধিকারিকরা রুজিরার বিরুদ্ধে যে নোটিশ জারি করেছে এবং যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, সেটাকেই চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি, জানা গিয়েছে এমনটাই। বৃহস্পতিবার সেই মামলার শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজশ্রী ভরদ্বাজের এজলাসে।

কয়েকদিন আগেই শীর্ষ আদালতের কাছে সিবিআই অভিযোগ করে যে, ২ মার্চ একজন প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তির স্ত্রী’কে কলকাতা বিমানবন্দরে আটকান শুল্ক দফতরের আধিকারিকরা। শুল্ক দফতরের আধিকারিকরা তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করার চেষ্টা করলেও স্থানীয় পুলিশ বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেলের ভিতর এসে ঢুকে পড়ে এবং জোর করে ওই দিনই তাঁকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। বুধবার এই মামলাটির শুনানি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার বিচারপতি সেই মামলার শুনানি ধার্য করেন।সূত্রের খবর, তাঁকে নিয়মমাফিক জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য একটি নোটিশ পাঠানো হয়েছিল। তারপরেই তিনি এই নোটিশের ওপর স্থগিতাদেশ চেয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন।

 

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই বিমানবন্দরে নিয়ম বহির্ভূত ভাবে সোনা সহ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী ধরা পড়েছিলেন বলে একটি খবর ছড়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করে বিজেপি সহ বিরোধী দলগুলি। এরপরই গত রবিবার আমতলার দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে সমস্ত অভিযোগ খারিজ করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। পাল্টা অভিযোগ করেন কাস্টমস এর কর্তারা বেআইনি ভাবে টাকা দাবি করেছিলেন তাঁর স্ত্রীর কাছে। এমনকি গোটা ঘটনার পেছনে বিজেপির চক্রান্ত রয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। এই নিয়ে উত্তর চব্বিশ পরগনার জেলা নির্বাচনী আধিকারিকের কাছে বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়ে পাঠান রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here