kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: কয়েকদিন আগে ঠাকুরনগরে সভা করে গিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। নাগরিকত্ব নিয়ে এখনও ক্ষোভ আছে মতুয়াদের মধ্যে। সেই ক্ষোভ প্রশমনে একাধিকবার বিজেপি নেতাদের ছুটে যেতে হচ্ছে ঠাকুরনগরে। সেদিন সভায় অমিত শাহ মতুয়াদের নাগরিকত্ব নিয়ে আশ্বস্ত করলেও মতুয়াদের মধ্যে এখনও একটা দ্বিধা রয়ে গিয়েছে। আর তারই ফায়দা নিতে আসরে নেমেছে তৃণমূল।

​আজ ঠাকুরনগরের সভা করলেন তৃণমূল যুব সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কয়লা-কাণ্ডের তদন্তের সূত্র ধরে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী ও শ্যালিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। তারপর আজ প্রথম সভা করছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বভাবতই সিবিআই জিজ্ঞাসাবাদ নিয়ে এদিন তিনি সুর চড়াবেন বলে মনে করা হয়।

বক্তব্যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘সিবিআই-ইডি যাকে খুশি পাঠান। মেরুদণ্ড বিক্রি করব না। বাংলায় বহিরাগতদের কোনও জায়গা নেই। বাংলা রক্ষা করবে বাংলার মানুষ।‘

​এরপর তিনি নাগরিকত্ব ইস্যু নিয়ে বলেন, ‘১৩০ কোটি মানুষের ভ্যাকসিন পেতে ৯-১০ বছর লাগবে। তারপর হবে নাগরিকত্ব। নাগরিকত্ব তুমি কী দেবে? আপনাদের ভোটার কার্ড আধার কার্ড নেই? যে ভোটার কার্ড নিয়ে আপনারা ভোট দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করেছেন, যদি আপনারা অবৈধ হন, তা হলে সবার আগে অবৈধ প্রধানমন্ত্রী! নাগরিকত্ব দেবে বলে ভাঁওতা দিচ্ছে বিজেপি। তাদের সেই ফাঁদে পা দেবেন না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আপনাদের সম্মান দিয়েছেন। আপনাদের স্বীকৃতি দিয়েছেন। আপনাদের জমির পাট্টা দিয়েছেন। আর কোনও স্বীকৃতি দরকার আছে কি?’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here