মুখ্যমন্ত্রীকে এবার ‘সন্ত্রাসবাদী’ আখ্যা এবিভিপির! বেনজির আক্রমণ পার্থকেও

0
75

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে “সন্ত্রাসবাদী” বলে আক্রমণ অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের। রাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে এবিভিপির সদস্যদের ওপর ‘সন্ত্রাস’ করা হচ্ছে, এই অভিযোগ তুলে গেরুয়াপন্থী ছাত্র সংগঠনের জাতীয় সাধারণ সম্পাদক আশীষ চৌহান মুখ্যমন্ত্রীকে চড়া সুরে আক্রমণ করে বলেন, ‘বহিরাগতদের সামনে রেখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাদের সদস্য কর্মকর্তাদের ওপর হামলা চালাচ্ছেন। এবিভিপিকে আটকাতে অস্ত্রের ব্যবহার করছেন। উনি মুখ্যমন্ত্রী নন। উগ্রপন্থী। তাই জঙ্গি কায়দায় অস্ত্র ব্যবহার করে কলেজ কম্পাসে খুন-সন্ত্রাস করাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।’

লোকসভা ভোটে বাংলায় বিজেপির আসন একলাফে ২ থেকে ১৮ চলে যাওয়ায় দলের পাশাপাশি তৃণমূলের ছাত্র সংগঠনেও ভাঙন শুরু হয়েছে। রাজ্যের একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভিড় বাড়ছে গেরুয়া শিবিরের দিকে আর এই ‘বাড়বাড়ন্ত’ই তৃণমূল মেনে নিতে পাচ্ছে না বলে অভিযোগ এবিভিপির। আশীষ চৌহানের বক্তব্য, ‘সরকার এখনও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, তাই একদিকে পুলিশ অপরদিকে গুন্ডা বাহিনী এখনও তৃণমূলের সঙ্গেই আছে। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে আমাদের ওপর খুন-সন্ত্রাসের রাস্তায় যাচ্ছে তৃণমূল।’
ছাত্র সংসদের নির্বাচন নিয়ে টিএমসিপি সহ বিরোধী ছাত্র সংগঠনগুলির সঙ্গে বৈঠক করবেন রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে সেই বৈঠকে এবিভিপিকে ডাকা হবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। এদিন সেই প্রসঙ্গ টেনে এবিভিপির রাষ্ট্রীয় সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমাদের বাদ দিয়ে বৈঠক করতে চাইছেন শিক্ষামন্ত্রী। আমাদের ইতিহাস ও অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। আমি একটা কথাই বলতে চাই, ওনার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্মের আগে আমাদের সংগঠনের জন্ম। তাই তৃণমূলের কাছ থেকে আমাদের সার্টিফিকেট নিতে হবে না। আর আমরা কী কাজ করি সেটা জানতে একটু কষ্ট করে ওনাকে আরটিআই করতে বলছি।’

ইতিমধ্যেই পশ্চিম বঙ্গের ৫০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবিভিপি ইউনিট খুলেছে বলে দাবি এই ছাত্র সংগঠনের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সপ্তর্ষি সরকারের। কলকাতার হরিয়ানা ভবনে দু’দিন ধরে চলা জাতীয় কর্ম সমিতির বৈঠকে চলছে। সেই বৈঠকের সিদ্ধান্ত মত ৩৭০ ও ৩৫ (এ) ধারা বাতিল করার জন্য আগামী ১৪ ও ১৫ আগস্ট গোটা দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা তোলা হবে বলেও জানান আশীষ চৌহান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here