ডেস্ক: গরমে প্যাচপ্যাচে ঘামের চেয়ে, শীতের চাদর মুড়ি দেওয়ায় আরাম যে কতখানি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। বাইরে কাঠফাঁটা হোক, বা মাথার ভিতর ঝাঁঝাঁ শব্দ তোলা রদ্দুরের থেকে রেহাই পেতে ঘরের বাতানুকুল যন্ত্র বা এসির মাহাত্ম অপরিসীম। রিমোর্ট হাতে তুলে একেবারে ১৬ ডিগ্রিতে তাপমাত্রা নামিয়ে কম্বল চড়িয়ে সুখের ঘুম দেয় দেশবাসী। তবে সে সুখ আর কপালে সইল না। এসির তাপমাত্রা এবার থেকে ২৪ ডিগ্রিতে বেধে দেওয়ার পথে এগোল কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রক। বিদ্যুতের খরচ বাঁচাতেই এহেন পদক্ষেপ কেন্দ্র নিতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। খুব শীঘ্রই এই সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকাও জারি হতে চলেছে।

সম্প্রতি দেশের এসি প্রস্তুতকারক সংস্থার আধিকারিকদের সঙ্গে একটি বৈঠকে বসেছিলেন কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী আর কে সিং। এই বঠকের পরই শুক্রবার তিনি বলেন, ‘বিদ্যুতের খরচ বাঁচাতে এসির তাপমাত্রা বেধে দেওয়া হবে। এবং খুব শীঘ্রই এইসংক্রান্ত একটি নির্দেশিকাও জারি করা হবে।’ এসি গ্রাহকদের আর্থিক এবং শারিরীক পরিস্থিতির কথা বিচার করেই নেওয়া হচ্ছে এই সিদ্ধান্ত। এইপ্রসঙ্গে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘শীততাপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্রে প্রতি এক ডিগ্রি বাড়ালে ৬ শতাংশ বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয়। সাধারণভাবে মানবশরীর ৩৬ থেকে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা সহ্য করতে পারে। তবে বেশিরভাগ জায়গাতেই ১৮-২১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রাখা হচ্ছে। এটা অস্বাস্থ্যকর এবং একইসঙ্গে বিদ্যুতের খরচও ব