kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, নদিয়া: বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এক ছাত্রীর ওপর অ্যাসিড হামলার ঘটনা ঘটল। এই ঘটনায় অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে। অ্যাসিড আক্রান্ত ওই ছাত্রী গুরুতর জখম অবস্থায় নদিয়ার শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়া কালীগঞ্জ থানার অন্তর্গত বড় চাঁদঘর দক্ষিণপাড়া এলাকায়।

অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে বড় চাঁদঘর এলাকার ওই তরুণী পলাশি কলেজের বিএ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় এলাকারই যুবক ওয়াসিম মণ্ডল। সে পেশায় হাতুড়ে ডাক্তার। ওই যুবকের কাছ থেকে পাওয়া বিয়ের প্রস্তাব নাকচ করে দেন ওই ছাত্রী। তার ফলে ওই ছাত্রীর ওপর ক্ষুব্ধ ছিল ওয়াসিম। এরপর সে সুযোগ খুঁজতে থাকে। ওই তরুণী বিয়েতে রাজি না হওয়ায় তার ওপর অ্যাসিড হামলা চালায় ওয়াশি।

ওই ছাত্রীর পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে মায়ের কাছে শুয়ে ছিলেন আক্রান্ত ছাত্রী। তখনই ঘুমন্ত অবস্থায় ওয়াসিম মণ্ডল নামে ওই যুবক তার এক বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে মধ্যরাতে ওই ছাত্রীর বাড়িতে আসে। রাতের অন্ধকারে সে এরপর ওই ছাত্রীর মুখে অ্যাসিড ছুড়ে মারে বলে অভিযোগ। চিৎকার-চেঁচামেচিতে বাড়ির লোক ঘুম থেকে উঠে অভিযুক্তদের ধাওয়া করলে তারা পালিয়ে যায়।

ওই তরুণীর পাশে তার মা থাকার কারণে তিনিও অ্যাসিড আক্রান্ত হন। এরপরে ওই তরুণীকে পরিবারের সদস্যরা স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন চিকিৎসকরা। এই ঘটনায় অভিযুক্ত যুবকের কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন ওই ছাত্রীর পরিবারের লোকজন। অভিযুক্তদের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here