ডেস্ক: গণতন্ত্র সঙ্কটে রয়েছে এই দাবি তুলে কিছুদিন আগেই প্রকাশ্য সাংবাদিক সম্মেলন করেছিলেন সুপ্রিমকোর্টের ৪ সাংবাদিক যা নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি। এবার সেই দাবিতেই মান্যতা দিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুললেন অভিনেত্রী তথা পরিচালক নন্দিতা দাস। তবে দেশের কোনও বিচারপতি বা আদালতের বিরুদ্ধে নয়, তাঁর দাবী যেকোনো ক্ষেত্রের শিল্পী, লেখক অন্যানদের কোনও না কোনওভাবে টার্গেট করা হচ্ছে এই দেশে।

তাঁর দাবি, ভারতবর্ষে যেকোনও ছবি নিয়েই বিতর্কের সৃষ্টি হয়। সঞ্জয় লীলা বনশালীর পদ্মাবত-ই হোক বা এস দুর্গা-র স্ক্রিনিং। এই সমস্ত ছবিকে ঘিরে একের পর এক বিতর্ক হচ্ছে। হিন্দি ছবিতে পাকিস্তানি কলাকুশলীদের অভিনয় করাকে কেন্দ্র করেও বিতর্কের শেষ নেই। তাদের কাজের ওপরও বিভিন্ন ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। শিল্পীদের স্বাধীনতা নিয়ে প্রায় প্রতিদিন প্রশ্ন উঠছে। অভিনেত্রীর মতে, এই বিতর্ক স্বাধীনতা খণ্ডনের চেষ্টা ছাড়া আর কিছু নয়। ফায়ার-এর অভিনেত্রী নন্দিতা দাস আরও বলেন, ‘সমাজ তখনই সামনে এগোয়, যখন তাতে নানা মত প্রকাশিত হয়, আলোচনার স্বাধীনতা থাকে। কিন্তু তার স্থান যদি আসতে আসতে ছোটো হলে তা গণতন্ত্র তো বটেই মানবাধিকারের প্রতিও বিপদজ্জনক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here