bengal news

বিশেষ প্রতিবেদন: করোনা আতঙ্কে ত্রস্ত গোটা বিশ্ব। ভারতেও ক্রমশ প্রভাব বিস্তার করছে এই মারণ ভাইরাস। এখনও পর্যন্ত ভারতে ১৬৯ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত। মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত রাজ্যের সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই পরিস্থিতিতে পড়ুয়াদের সুরক্ষার পাশাপাশি তাদের পড়াশোনার কোনও ক্ষতি না হয়, সেই জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নিল রাজ্য তথা দেশের অন্যতম সেরা সরকারি চাকরির প্রশিক্ষণমূলক প্রতিষ্ঠান রাইস গ্রুপ। এই সঙ্কটজনক পরিস্থিতিতে ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার্থে চালু হল অনলাইন ক্লাস।

এক্ষেত্রে কোনও ছাত্র-ছাত্রী বা শিক্ষককে রাইসের সেন্টারে আসতে হবে না। ঘরে বসেই ভিডিয়ো মারফত শিক্ষকেরা ক্লাস নিতে পারবেন এবং পড়ুয়ারাও নিয়মমাফিক পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারবেন। একইভাবে রাইস গ্রুপের কর্ণধার প্রফেসর সমিত রায়ের তৈরি অ্যাডামাস বিশ্ববিদ্যালয়েও অনলাইনে ক্লাস নেওয়া শুরু করেছেন অধ্যাপকরা। উল্লেখ্য, সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী, রাইস এবং অ্যাডামাস বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিমধ্যেই ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

তবে শুধুমাত্র উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই নয়, অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হতে চলেছে একেবারে স্কুলস্তর থেকেও। বেলঘরিয়ার অ্যাডামাস ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ও বারাসতের অ্যাডামাস ওয়ার্ল্ড স্কুলেও অনলাইন ক্লাস চালু হচ্ছে। ক্লাস তো বটেই, পড়ুয়াদের রিপোর্ট কার্ড অনলাইনে পাঠানোরও ভাবনা রয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষের।

অ্যাডামাস ওয়ার্ল্ড স্কুলের প্রিন্সিপাল সুপর্ণা ভট্টাচার্য এবং অ্যাডামাস ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রিন্সিপাল মিত্রা সিনহা রায় জানিয়েছেন, প্রথম শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়াদের জন্য অনলাইন ক্লাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। শিক্ষক-শিক্ষিকারা নির্দিষ্ট সিলেবাসের উপরে অনলাইনে ভিডিয়ো তৈরি করেছেন। সেগুলি একটি বিশেষ লিঙ্কের মাধ্যমে যুক্ত করা থাকছে। ওই লিঙ্কে গিয়ে ভিডিয়ো আপলোড করা যাবে। ফলে স্কুল বন্ধ থাকলেও পড়ুয়াদের পঠনপাঠনে কোনও সমস্যা হবে না।

Image result for rice group samit roy

কিন্তু হঠাৎ অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার এমন সিদ্ধান্ত কেন? প্রফেসর সমিত রায়ের কথায়, ‘গোটা বিশ্বে করোনা ভাইরাসকে ‘প্যানডেমিক’ বা বিশ্বজনীন মহামারী রূপে ঘোষণা করেছে ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন(হু)। ইতিমধ্যেই বহু মানুষ মারা গিয়েছেন। সংক্রমণ রুখতে রাজ্যে বন্ধ রয়েছে সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। কিন্ত একইসঙ্গে যাতে ক্লাস নষ্ট না হয়, সেজন্যই বাড়িতে বসে অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here